রবিবার, মে ৩০, ২০২১




সময়নিউজে সংবাদ প্রকাশঃ চাঁদপুর প্রতিবেদককে ছাত্রলীগকর্মীর হুমকি

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ চলন্ত ট্রেনের সামনে দিয়ে রেললাইন পার হতে গিয়ে শেখ মেহেদী হাসান রুবেল নামে চাঁদপুর পৌরসভার ১৩নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নিহত হন। এ সময় আহত হন রাজন খান নামে আরও একজন।

শনিবার (২৯ মে) দুপুরে চাঁদপুর শহরের ওয়ারলেস মুন্সিবাড়ি এলাকার সংঘটিত এ দুর্ঘটনা নিয়ে সময় নিউজে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়।

 

সময়নিউজে সংবাদ প্রকাশের পর চাঁদপুর শহরে একটি ব্যায়ামাাগরের মালিক শহীদ রহমান এবং ছাত্রলীগকর্মী অনিক আহমেদ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সময় মিডিয়ার চাঁদপুরে কর্মরত নিজস্ব প্রতিবেদক ফারুক আহম্মদকে নানাভাবে হুমকি ধমকি দিচ্ছেন।

এদিকে, ফারুক আহম্মদের ওপর ছাত্রলীগ কর্মীদের চড়াও হতে উত্তেজিত করার মতো পোস্ট দিয়ে যাচ্ছেন।

এমন ঘটনায় উদ্বেগ ও নিন্দা জানিয়েছেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী ও সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা।

 

শনিবার চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুরের উদ্দেশে ছেড়ে আসা মেইল ট্রেন ‘সাগরিকা’ সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মেহেদী হাসান রুবেলসহ মোটরসাইকেলের দুই আরোহীকে যেখানে ধাক্কা দিয়েছে সেখানে লেভেলক্রসিং কিংবা ব্যারিয়ার কিছুই ছিল না। ফলে রেললাইন আর পাশের সড়ক একইসঙ্গে হওয়ায় দুর্ঘটনার সময় ওই ট্রেনের লোকোমটিভ মাস্টারের (চালক) হুইসেল সর্তক (সিগন্যাল) কোনো কাজে আসেনি। যে কারণে নির্মমভাবে প্রাণ হারাতে হয় মোটরসাইকেলের চালক শেখ মেহেদী হাসান রুবেলকে।

রোববার (৩০ মে) সরেজমিন ঘটনাস্থলে দেখা গেছে, চাঁদপুর শহরের ওয়ারলেস এলাকা থেকে মুন্সিবাড়ি হয়ে শেখেরহাটে যে পাকা সড়কটি চলে গেছে তা চাঁদপুর-লাকসাম রেললাইনের ওপর দিয়ে স্থাপিত। ব্যস্ত এই সড়কের রেললাইনের অংশের দুই পাশে কোনও লেভেল ক্রসিং বা ব্যারিয়ার নেই। রেললাইনের উত্তর পাশে লাগোয়া একটি ধর্মীয় স্থাপনা। তার উল্টো দিকে এবং পাকা সড়কের পূর্ব পাশে চা এবং অন্যান্য আরও কয়েকটি দোকান রয়েছে।

 

গতকাল ঘটনার সময় উপস্থিত থাকা বেশ কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, চট্টগ্রাম থেকে লাকসাম হয়ে চাঁদপুরের দিকে ছেড়ে আসা মেইল ট্রেন সাগরিকা শাহতলী এলাকা পার হওয়ার পর কিছুটা ধীর গতিতে নিকটবর্তী শেষ স্টেশন চাঁদপুর শহরে পৌঁছে।

ওই ট্রেনের চালকও একই দাবি করেছেন। নাম গোপনের শর্তে তিনি জানান, শত শত যাত্রী নিয়ে চলাচলকারী এমন ট্রেন হঠাৎ করে ব্রেক কষে থামিয়ে দেওয়ার কোনও সুযোগ নেই। টানা একাধিক হুইসেল অর্থাৎ সিগন্যাল দিয়ে আশপাশের লোকজনকে সর্তক করা হয়। যেমনটি গত শনিবারও করেছি।

চাঁদপুর পৌরসভার ১৩ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি আবুল কাশেম অভিযোগ করেন, ঘটনাস্থলের আশপাশে বেশ কয়েকটি অবৈধ স্থাপনার কারণে এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটেছে।

চাঁদপুর রেলস্টেশন মাস্টার শোয়াইব সিকদার বলেন, সেখানে সড়ক থাকলেও রেললাইন পারাপার হওয়ার জন্য লেভেল ক্রসিং স্থাপনের জন্য কখনও কেউ আবেদন করেনি। ফলে অসতর্কতার কারণেই যখন তখন দুর্ঘটনা ঘটছে।

 

চাঁদপুর জিআরপি থানার ওসি মুরাদউল্লাহ বাহার জানান, মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহতের পরিবারের কোনও অভিযোগ না থাকায় বিনা ময়নাতদন্তে লাশ দাফনের অনুমতি দিয়েছেন চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট।

চাঁদপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, পৌরসভার মুন্সিবাড়ি এলাকাসহ চাঁদপুরের যেসব স্থানে রেললাইনের সঙ্গে এমন সংযোগ রয়েছে অথচ লেভেল ক্রসিং কিংবা ব্যারিয়ার নেই। দুর্ঘটনা এড়াতে সেখানে অতিদ্রুত প্রয়োজনীয় স্থাপনা তৈরির জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছেন।

এছাড়া চাঁদপুর পৌরসভাকে জরুরি ভিত্তিতে বাঁশ দিয়ে রেলগেইট স্থাপন এবং গেইটম্যানের ব্যবস্থা করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন বলে জানান এই জেলা প্রশাসক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category