বৃহস্পতিবার, জুলাই ১, ২০২১




শুভ জন্মদিন জয়া আহসান

মো. নাছির উদ্দীন : বাংলাদেশের অন্যতম সেরাসুন্দরী পদ্মাপাড়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসানের জন্মদিন আজ। আবার গঙ্গাপাড়েও ঝড় তোলেন। কেননা তিনি তার অভিনয় দক্ষতা ও সৌন্দর্যে মুগ্ধ করে রেখেছেন দুই বাংলার আপামর ভক্ত-সমর্থকদের। ১৯৮৩ সালের আজকের (১ জুলাই) এই দিনে গোপালগঞ্জ জেলায় জন্মগ্রহণ করেন জয়া আহসান। দেখতে দেখতে জীবনে ৩৮টি বসন্ত পূর্ণ করলেন গ্ল্যামারখ্যাত এ নায়িকা।ক্যারিয়ারের শুরুতে ছোটপর্দায় সরব ছিলেন জয়া আহসান। নাটক ও বিজ্ঞাপনের মডেল হয়ে জয় করে নিয়েছিলেন দর্শকের হৃদয়। পেয়েছেন সাফল্য। তবে অভিনয় শুরুর আগে নাচ ও গানের প্রতি আকৃষ্ট ছিলেন জয়া। প্রাতিষ্ঠানিক লেখাপড়ার সঙ্গে সঙ্গে তিনি ছবি আঁকা শিখেছিলেন। পাশাপাশি তিনি রবীন্দ্র সংগীতের উপর ডিপ্লোমা কোর্স এবং শাস্ত্রীয় সংগীতের প্রশিক্ষণও নিয়েছিলেন।
জয়া আহসানের প্রথম সিনেমা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত ‘ব্যাচেলর’। এটি মুক্তি পায় ২০০৪ সালে। এরপর বড় পর্দায় দীর্ঘ বিরতি দিয়ে নূরুল আলম আতিক পরিচালিত ‘ডুবসাঁতার’ ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। এরপর নাসির উদ্দীন ইউসুফ পরিচালিত ‘গেরিলা’ ছবিতে অভিনয় করে নতুন করে সবার নজর কাড়েন জয়া। এতে অভিনয়ের সুবাদে প্রথমবারের মতো পান জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।এছাড়া টলিউডের ‘বিসর্জন’ সিনেমাতে অনবদ্য অভিনয়ের জন্য প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে জয়া আহসান ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। তার অভিনীত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য- ডুবসাঁতার, ফিরে এসো বেহুলা, গেরিলা, চোরাবালি, আবর্ত, পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী, জিরো ডিগ্রী, একটি বাঙালি ভূতের গপ্পো, রাজকাহিনী, পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি ২, ঈগলের চোখ, বিসর্জন, খাঁচা, পুত্র, দেবী, এক যে ছিলো রাজা, ক্রিসক্রস, বিজয়া, কণ্ঠ ও অলাতচক্র।
জয়া আহসান এখন পর্যন্ত ৪টি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, ৭টি মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার, ২টি ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডসহ মোট ২৮টি পুরস্কার অর্জন করেছেন। অভিনয়ের পাশাপাশি প্রযোজকের আসনটিও দারুণভাবে সামলেছেন জয়া আহসান। তার প্রথম প্রযোজনা ‘দেবী’। এটি মুক্তি পেয়েছিল ২০১৮ সালের ১৯ অক্টোবর। হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস অবলম্বনে চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেন অনম বিশ্বাস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category