বুধবার, অক্টোবর ২০, ২০২১




ফরিদগঞ্জ ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন

এস. এম ইকবালঃ যথাযোগ্য মর্যাদায় ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে উপজেলায় ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) উদযাপন। এ উপলক্ষে জশনে জুলুসের আয়োজন করে ফরিদগঞ্জ উপজেলা গাউছিয়া কমিটি।

ঢাকা মহানগর গাউছিয়া কমিটির সভাপতি ও ফরিদগঞ্জ উপজেলা শাখার প্রধান উপদেষ্টা আলহাজ্ব আব্দুল মালেক বুলবুল আহমেদের সার্বিক তত্ত¡াবধানে এবং তার নেতৃত্বে এই জুলুসে অংশ নেন গাউছিয়া কমিটির বিভিন্ন শাখার নেতৃবৃন্দ ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।

২০ অক্টোবর বুধবার বেলা ১১টায় চরপাড়া মোহাম্মদীয়া তৈয়্যবিয়া দাখিল মাদ্রাসার সামনে থেকে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবীর জশনে জুলুস শুরু হয়। প্রতি বছরের ন্যায় ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে ফরিদগঞ্জে জশনে জুলুসে অংশ নিয়েছে হাজারো ধর্মপ্রাণ মানুষ। নানা শ্রেণি-পেশা ও বয়সের মানুষ এতে শরিক হয়েছেন।

সবার মুখে মুখে ছিল তাকবিরের শ্লোগান এবং দয়াল নবীর শানে গাওয়া বিভিন্ন কাসিদা। তাছাড়া জশনে জুলুসে অংশ নেওয়া ১০টি মাইক্রো, ২০টি পিকআপ, ১০০টি সিএনজি, ৩০০টি অটোবাইক, দুই শতাধিক মোটর সাইকেল আলাদা শোভা দিয়েছে নবীর জন্মদিনের আনন্দ মিছিলে। সা¤প্রতিক সময়ের পরিস্থিতি বিবেচনা করে মিছিলটির ব্যাপ্তি সংক্ষিপ্ত করা হলেও আনন্দের কমতি হয়নি একটুও বলে জানিয়েছেন জুলুসে অংশ নেওয়া আশেকে রাসূলগণ।

এদিকে জশনে জুলুসের আনন্দ মিছিলের পূর্বে সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আলহাজ্ব আব্দুল মালেক বুলবুল আহমেদ। দোয়াগীর ছিলেন ফরিদগঞ্জ মজিদিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ড. একেএম মাহবুবুর রহমান। মিলাদুন্নবী উপলক্ষে আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকার মিরপুর বাংলা কলেজ জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব মাওলানা ফখরুজ্জামান খান।

মাওলানা মো. খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সেকদি পালতালুক মাদ্রাসা ও মসজিদ কমিটির প্রধান উপদেষ্টা আলহাজ্ব ফারুক আহমেদ খান, ফরিদগঞ্জ গাউছিয়া কমিটির উপদেষ্টা হাফেজ মাওলানা ইব্রাহীম খলিল চাঁদপুরী। জশনে জুলুস ও অন্যান্য আয়োজনের সার্বিক তত্ত¡াবধানে ছিলেন আলহাজ্ব আবুল কালাম আজাদ, আব্দুল মান্নান মনু ভূঁইয়া। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাদ্রাসার সুপার মাওলানা মো. জাহাঙ্গীর আলম, মাওলানা জহিরুল ইসলাম আলকাদেরী, হাফেজ মজিবুল হক আনসারী, মাওলানা আ.ন.ম শাহাজালাল, মাস্টার আছিম উদ্দিন, হাফেজ সাইফুল ইসলাম আলকাদেরী প্রমুখ।

এদিকে জুলুস দেখতে সড়কের পাশে জড়ো হয়েছিলেন অসংখ্য মানুষ। মিছিল চলাকালীন সময়ে ছোটদের মাঝে চকলেট বিতরণ করতে দেখা গেছে। এছাড়া জুলুসের পতাকা, ব্যানার, পোস্টার, ফেস্টুনে সেজেছে জশনে জুলুসের পুরো গাড়িবহর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category