শনিবার, মে ৮, ২০২১




ফরিদগঞ্জে আগুনে কেড়ে নিলো অসহায় নারীর বসত ঘর

এস. এম ইকবালঃ ফরিদগঞ্জে ভয়াবহ অগ্নীকান্ডে ২টি বসত ঘর পুড়ে চাঁই হয়ে গেছে।
৭ মে শুক্রবার রাত ১০ টায় উপজেলার ১৫ নং রূপসা উত্তর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের পশ্চিম মুন্সী বাড়ীতে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ক্ষতিগ্রস্থ্য পরিবারের ডাক চিৎকারে আশ পাশ্বের লোকজন এসে পানি ছিটিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। ততক্ষনে স্বামী পরিত্যাক্ত বিউটি বেগম ও তার ভাশুর আনিছুর রহমান বাবুল এর ২ টি বসত ঘর পুড়ে চাঁই হয়ে যায়।
খবর পেয়ে চাঁদপুর ফায়ার ষ্ট্রেশনের লোকজন ছুটে আসে ঘটনাস্থলে। ধারনা করা হচ্ছে কয়েলের আগুন থেকে আগুনের সুত্রপাত হতে পারে।
অসহায় নারী বিউটি আক্তার জানান, খাওয়া দাওয়া করে ৩ সন্তানকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ি। হঠাৎ দেখি ঘরের ভিতরে আগুন দাউ দাউ করে জ্বলছে। আমি সন্তানদের নিয়ে দ্রুত বাহিরে এসে চিৎকার চেঁচামেচি করলে আশপাশের লোকজন এসে পানি ছিটিয়ে আগুন নিভাতে সক্ষম হয়। এরই মধ্যে আমার ও আমার ভাশুরের বসতঘর পুঁড়ে চাঁই হয়ে যায়।
জানাযায়, স্বামীর অনুপস্থিতিতে ৩ সন্তান নিয়ে মানুষের ঘরে কাজ করে বহু কষ্টে দিনানিপাত করে স্বামী পরত্যাক্ত বিউটি।
এসময় অসহায় বিউটি বেগম চিৎকার করে কাঁদতে কাঁদতে বলেন, আমি তিল তিল করে বহুকষ্টে করে এই সংসারটি গুঁছিয়েছি। আমি ঘরথেকে কিছুই বের করতে পারিনি। আগুন কেন আমার শেষ সম্বলটিও কেঁড়ে নিলো। কি অপরাধ করে ছিলাম আমি। এখন আমি সন্তানদের নিয়ে কোথায় থাকবো, কি খাবো?
আগুন লাগার ঘটনা শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন স্থানীয় এমপি মুহম্মদ শফিকুর রহমানের প্রতিনিধি নজরুল ইসলাম সুমন। এসময় নজরুল ইসলাম সুমন ক্ষতিগ্রস্ত বিউটি বেগমকে নগদ ৫ হাজার টাকা দেন ও দুই বান টিন দিবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন।
এসময় এলাকায় বাসীর বলেন,  মানবিক দিক বিবেচনা করে সরকার ও সমাজের ভিত্তবানদের বিউটি বেগম সহযোগিতা করার অনুরোধ জানান।
আগুনের খবর পেয়ে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহিদ হোসেন তাৎক্ষনিক ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category