বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৩১, ২০১৯




লাল-সবুজের উদ্যোগে সাভারে মাদক, ধর্ষণ ও দুর্নীতি প্রতিরোধে লাল কার্ড প্রদর্শন

স্টাফ রিপোর্টারঃ  বৃহস্পতিবার বিকেল ৩ টায় সাভার জামসিং চৌরাস্তায় বিএসবি গোল্ড মাইন্ড স্কুলে শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকায় পরিচালিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের আয়োজনে জঙ্গিবাদ, মাদক, ইভটিজিং, বাল্য বিবাহ, ধর্ষণ ও দুর্নীতিকে লাল কার্ড প্রদর্শন করে শপথ নেয় বিদদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। এসময় তারা দেশপ্রেম ও মানবতাকে সবুজ কার্ড প্রদর্শন করেন।পরে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় ড্রিম ফর ডিস্ এবিলিটি ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হেদায়েতুল আজিজ মুন্নারর সঞ্চালনায় ও লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের প্রতিষ্ঠাতা ও কেন্দ্রীয় সভাপতি কাওসার আলম সোহেলের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. এমরান জাহান। অনুষ্ঠানে  প্রধান আলোচক ছিলেন সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ সায়েমুল হুদা।

এসময় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাভার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এএফএম সায়েদ, প্রাক্তন তারকা ফুটবলার মোহাম্মদ কায়সার হামিদ, সাভার পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিনহাজ উদ্দিন মোল্লা, সাভার উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ সালাহ্ উদ্দিন খান নঈম, বিডি এনিমেল হেলথ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ রাসেল আহমেদ, বিএসবি গোল্ড মাইন্ড স্কুলের চেয়ারম্যান খুর্শিদা জাহান মিতা, প্রধান শিক্ষক রাজা নেওয়াজ মারুফ, লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘেরর মনিটরিং সেলের নির্বাহী প্রধান ডাঃ ইমরান হোসেন, কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক সাইদুল হাসান শাকিল, সাভার শাখার সভাপতি এম আর ইসলাম সাগর প্রমুখ।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি কাওসার আলম বলেন, লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের সদস্যদরা তাদের প্রতি মাসের একদিনের টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে ২০১১ সাল থেকে সারাদেশে জঙ্গিবাদ, মাদক, ইভটিজিং ও ধর্ষণ প্রতিরোধে স্বেচ্ছায় কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি অভিবাবক ও শিক্ষার্থীদের সচেতনতামূলক কাজে অংশ নিয়ে মাদক ও ধর্ষণ প্রতিরোধে এগিয়ে অাসার অনুরোধ জানান।

বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক রাজা মারুফ নেওয়াজ বলেন, আমি নিজে একজন শারীরিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তি। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরাও যে সমাজ উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারে সেই লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে মাদক, দুর্নীতি ও বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে কাজ করে যাচ্ছেন।

নিজকে যোগ্য ও অদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে, কখনো মিথ্যা কথা না বলতে, ছেলেরা ২১ বছর ও মেয়েরা ১৮ বছর বয়সের অাগে বিবাহ বন্ধনে অাবদ্ধ না হতে শিক্ষার্থীদের শপথ পাঠ করান প্রধান অতিথি অধ্যাপক ড. এমরান জাহান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category