শুক্রবার, অক্টোবর ১৬, ২০২০




হাইমচরে মা ইলিশ ধরার অপরাধে ২ জেলে আটক

মো. জাহিদুল ইসলামঃ হাইমচর উপজেলার মেঘনায় জাতীয় সম্পদ ইলিশ নিধনের অপরাধে ২ জেলেকে আটক করা হয়েছে। আটক কৃত জেলেদের ২ বছরের সাজা প্রদান করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।
হাইমচরে মেঘনা নদীতে মা ইলিশ রক্ষা অভিযান  উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট রিগান চাকমা এর নেতৃত্বে চলছে। তার সাথে রয়েছে উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান ও উপজেলা নৌ-পুলিশের নির্বাহি কর্মকর্তা ইসাহাক।
১৫ ( অক্টোবর) বৃহস্পতিবার রাত ৯ ঘটিকায় মেঘনী নদীতে মা ইলিশ রক্ষা অভিযানে দ্বিতীয় দিনে ১০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ও দুই জন কে আটক করা হয় এবং ৩ কেজির মত মা ইলিশ মাছ জব্দ করা হয়েছে। পরে জব্দকৃত জালগুলো পুড়িয়ে ফেলা হয়। এছাড়া মেঘনা নদীতে জেলেদের দেখা পান নি।
এব্যাপারে উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান জানান, গত বছরের চেয়ে জেলে, আড়ৎদারদেরকে অনেক সচেতন করার লক্ষ্য বিভিন্ন বাজার ও মাছ ঘাটে মাইকিং ও সচেতনতামূলক সভা করেছি। তাই এ বছর একটু সচেতনতা দেখা যাচ্ছে। নদীতে জেলেদের তেমন দেখা মিলছে না। যে কেউ সরকারের আইন অমান্য করে মাছ ধরার চেষ্টা করলে তাদের জেল জরিমানা করা হবে। তাদের কঠোর অভিযান অব্যাহত থাকবে। যে কোন মূল্য তারা সরকারের মা ইলিশ রক্ষা অভিযান সফল করবেন বলে জানান।
তিনি আরো জানান, অভিযান পরিচানাকালীন সময়ে কোস্টগার্ড কর্তৃক মাঝের চর থেকে দুইজন জেলে আটক হয়। তারা হলেন নাম মোঃ মানিক লস্কর (২২), হাইমচর উপজেলার নীলকমল ইউনিয়নের পিতা নাসির লস্কর এর ছেলে। অন্য জন হলেন মোঃ সাইফুল (২২) পিতা আলাউদ্দিন উকিল। এসময় তাদের কাছ থেকে ১০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল উদ্ধারপূর্বক জব্দ করা হয়। পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী মেজিস্ট্রেট (ভূমি) অফিসার রিগান চাকমার ভ্রাম্যমান আদালতের নির্দেশনায় ওই জাল কাটাখালী লঞ্চ ঘাটে আগুনে পুড়ে ফেলা হয়। আটককৃত জেলে দুইজন কে ২ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন হাইমচর উপজেলা মৎস্য ক্ষেত্র সহকারী সজিব চন্দ্র দাস, কোস্ট পেটি অফিসার আব্দুল মতিন,২নং উঃ আলগী ইউনিয়ন পরিষদের ৯নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মোঃ আবুল হোসেন মিজি, মোঃ হারুন হাওলাদার সহ নৌ পুলিশ ফাড়ির সদস্যবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category