শনিবার, মে ১৬, ২০২০




সদাকাতুল ফিতরের বিধান

ফিতর আরবী শব্দ। এর অর্থ ভাঙ্গা বা ভঙ্গ করা। ইসলামি শরিয়তের পরিভাষায়, রোজার ত্রুটি-বিচ্যুতি থেকে বাচার জন্য ঈদের দিন সকাল বেলায় ঈদগাহে যাওয়ার পূর্বে গরিব-মিসকিনদের মাঝে যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয় তাকে সদাকাতুল ফিতর বলা হয়। রোজা সমাপনের দিন বা রোজা ভঞ্জনের দিন এই সদাকা দেওয়া হয় বলে একে সদাকাতুল ফিতর বলা হয়।

দাতা ও গ্রহীতার সুবিধার্থে রমাদ্বানের মধ্যেও তা আদায়ের শরঈ অনুমতি রয়েছে। সদাকাতুল ফিতরের মাধ্যমে গরিব-মিসকিনরাও ঈদের আনন্দে শামিল হতে পারে।
তাই নিজের আনন্দ সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে এই আয়োজন আল্লাহর পক্ষ থেকে নির্ধারিত।
ঈদগাহে যাওয়ার আগেই সদাকাতুল ফিতর আদায় করতে হবে। ঈদের নামাজের পর কেউ যদি আদায় করে তবে সাধারণ দানের সওয়াব পাবে।

সদাকাতুল ফিতর যার উপর ওয়াজিবঃ

মুসলমান নারী-পুরুষ,ছোট-বড়, স্বাধীন-পরাধীন সকলের উপর সদাকাতুল ফিতর আদায় করা ওয়াজিব।
ইবনে ওমর (রাঃ) হতে বর্ণিত, প্রিয় নবী (স) সদাকাতুল ফিতর আদায় করা আবশ্যক করেছেন।এর পরিমান হলো এক সা’ যব বা এক সা’ খেজুর। ছোট-বড়, স্বাধীন-পরাধীন, সামার্থ্যবান সকলের উপর এটা আবশ্যক।(বুখারী হাদিস নং ১৫১২)

ঈদের দিন সোবহে সাদিকের সময় নিত্য-প্রয়োজনীয় আসবাব, ব্যবহার্য দ্রব্যাদি, বাসগৃহ ইত্যাদি বাদ দিয়ে যার কাছে সাড়ে ৭ তোলা স্বর্ণ বা সাড়ে ৫২ তোলা রূপা বা তার সমপরিমা নদগ অর্থ সম্পদ থাকে তার উপর সদাকাতুল ফিতর আদায় করা ওয়াজিব।

সদাকাতুল ফিতর যারা গ্রহন করবেঃ

যাকাতের টাকা যারা গ্রহন করে তারাই সদাকাতুল ফিতরের মাল গ্রহন করবে।

যেসব বস্তু দ্বারা সদাকাতুল ফিতর আদায় করতে হয়ঃ

গম বা আটা, যব, খেজুর, কিসমিস ও পনির এ পাঁচটি বস্তু বা তার মূল্যের দ্বারা সদাকাতুল ফিতর আদায় করা যায়।
এক্ষেত্রে আদায়কারীকে মনে রাখা আবশ্যক, একেকটির মূল্য একেক রকম। যেমনঃ
ক, পনির দিয়ে আদায় করলে বর্তমানে তার টাকার পরিমান ২২০০ টাকা।
খ, খেজুরের মূল্য দিলে ১৬৫০ টাকা।
গ, কিছমিছের মূল্য দিলে ১৫০০ টাকা।
ঘ, যবের মূল্য দিলে ২৭০ টাকা।
ঙ, গম/আটার মূল্য দিলে ৭০ টাকা।

ইসলামি ফাউন্ডেশন কর্তৃক ঘোষিত এ বৎসরের সদাকাতুল ফিতরের পরিমান উপরোল্লিখিত।

পরিশেষে বলা চলে জনপ্রতি নির্ধারিত সদাকাতুল ফিতরের সর্বনিম্ন হলো ৭০ টাকা আর সর্বোচ্চ ২২০০ টাকা। আপনার সামার্থ্য অনুযায়ী বেশি টুকু আদায় করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করাই ঈমানের দাবী। তবে জনপ্রতি ৭০ টাকার কম যেন আদায় করা না হয়।
মনে রাখা জরুরী যে, একজনকে কয়েকজনের টাকা একসাথে প্রদান যাবে। আবার একাধিক জনকে একজনের টাকাও প্রদান করা যাবে। উদাহরণ স্বরূপ বলা যায়, ১ জনকে ৫ জনের ফেতরার টাকা দেওয়া যাবে।যেমনঃ ৫×৭০=৩৫০ টাকা। আবার ৫ জনকে একজনের টাকাও দেওয়া যাবে। যেমনঃ ৭০÷৫=১৪ টাকা। আল্লাহ আমাদেরকে সদাকাতুল ফিতর সঠিকভাবে আদায় করার তৌফিক দান করুন।

মাওলানা আব্দুল্লাহ আল-মামুন,হেড মৌলভী, চরকালিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, মতলব উত্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category