রবিবার, আগস্ট ৩০, ২০২০




শাহরাস্তিতে হয়রানি মূলক মামলা থেকে বাঁচতে চায় রায়হান

মফিজুল ইসলাম বাবুলঃ চাঁদপুরের শাহরাস্তি পৌরসভার ১০নং ওয়ার্ড সেনগাঁও গ্রামের আকরাম উদ্দিন হাজী বাড়ির সেলিমের স্ত্রী শেফালি আক্তারের দায়ের করা হয়রানি মূলক মামলা থেকে বাঁচতে চায় একই গ্রাম বাড়ির অধিবাসী শাহজানের ছেলে রায়হান (২৫)।

রায়হান জানান,শেফালি আক্তার বাদী হয়ে শাহরাস্তি মডেল থানায় তার মেয়ে পিংকি(১৮) কে জড়িয়ে আমার বিরুদ্ধে নারী-শিশু ও পর্নগ্রাফী আইনে যে, মামলাটি করেছে তা সম্পূর্ণ কাল্পনিক এবং ভিত্তিহীন।মূলত মামলার বাদী আমাকে হয়রানিতে ফেলে আমার পরিবারদের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার জন্য এই ভিত্তিহীন মামলা করে। মামলার অভিযোগের ভিত্তিতে মেডিকেল রিপোর্টে প্রমাণিত হয়েছে পিংকি ধর্ষিত নয়। রায়হান আরও জানান পিংকিকে জড়িয়ে তার কোনো কুরুচিপূর্ণ ছবি ফেইসবুকে ছেড়ে ভাইরাল করিনি। এই হয়রানি মূলক মামলা থেকে রেহাই পেতে চাই বলে রায়হান কাঁদতে কাঁদতে চোখের জল ফেলে দেয়।

উল্লেখ্য যে, মামলার অভিযোগে সংক্ষিপ্ত প্রকাশ, রায়হান পিংকিকে বিয়ের প্রলোবনে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে নিয়ে ধর্ষন করে।পরবর্তীতে রায়হান পিংকিকে বিয়ে করবেনা বলে অস্বীকার করে এবং তার কুরুচিপূর্ণ অশ্লীল ছবি ফেইসবুকে ছেড়ে ভাইরাল করে। এ নিয়ে পিংকির মা শেফালি আক্তার বাদী হয়ে শাহরাস্তি মডেল থানায় মামলা দায়ের করে যাহার মামলা নং-১১ তারিখ-২৩/০৫/২০২০ ইং।

মামলার তদন্ত অফিসার এস.আই মোস্তফা কামাল জানান, আমার আগের অফিসার কুতুবউদ্দীন বদলি হওয়ার পর মামলাটি আমার উপর দায়িত্ব ভার আসে। তিনি আরও জানান,মামলার বাদীর অভিযোগের পর মেডিকেল রিপোর্টে পিংকিকে ধর্ষণের ঘটনাটি মিথ্যা প্রমানিত হয় এবং আমার পূর্বের অফিসার পর্নগ্রাফী রিপোর্টের জন্য সি.আই.ডি তে তথ্য পাঠিয়েছেন। এখনো রিপোর্ট আসেনি। রিপোর্ট আসলে মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদন আদালতে পাঠানো হবে। রায়হান ও তার পরিবারের সদস্যরা মামলার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট ন্যায় বিচার পাওয়ার দাবি করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category