শনিবার, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২০




যুবাদের আচরণ মানতে পারছেন না কপিল দেব

মো. নাছির উদ্দীন : অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনাল শেষে দু’দেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন ভারতের প্রথম বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কপিল দেব। গতকাল মুম্বাইয়ে এক অনুষ্ঠানে রবি বিষ্ণোইদের আচরণের তীব্র সমালোচনা করেন তিনি।

ক্রিকেট ভদ্রলোকদের খেলা প্রশ্ন করতেই, ভারতের প্রাক্তন অধিনায়কের উত্তর, ‘‘কে বলছে ক্রিকেট ভদ্রলোকদের খেলা? আগে হয়তো ছিল। এখন আর নেই।’’ কপিলের উত্তরেই স্পষ্ট, তিনি কতটা ক্ষুব্ধ। বিশ্বকাপ ফাইনাল শেষে বাংলাদেশ ও ভারত যুবাদের হাতাহাতির কারণে পাঁচ ক্রিকেটারকে শাস্তি দিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। ভারতের আকাশ সিংহ ও রবি বিষ্ণোইকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশের তৌহিদ হৃদয়, শামিম হোসেন ও রাকিবুল হাসানকে বেশ কয়েকটি ম্যাচ থেকে নির্বাসিত করা হয়েছে

এই ঘটনাকে কী ভাবে দেখছেন, এমন প্রশ্নে কপিল দেবের উত্তর, ‘‘ম্যাচ শেষে যা হয়েছে তা অত্যন্ত ভয়ঙ্কর। যে কোনও দল ম্যাচে হারতেই পারে। কিন্তু এ ধরনের আচরণ একেবারেই কাম্য নয়। চুপচাপ ড্রেসিংরুমে ফিরে আসা উচিত ছিল। দু’দেশের ক্রিকেট বোর্ডের উচিত ওদের বিরুদ্ধে কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া। যাতে ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা আর না ঘটে।’’

কপিল সব চেয়ে বেশি ক্ষুব্ধ, দু’দেশের কোচিং স্টাফ ও ম্যানেজারের ওপর। তিনি বলেন, ‘‘সব চেয়ে বেশি দোষ দেব অধিনায়ক, ম্যানেজার ও যাঁরা ডাগ আউটে বসেছিলেন, তাঁদেরকে। অনেক সময় একজন ১৮ বছর বয়সী ছেলে বুঝতে পারে না কী আচরণ করা উচিত। কিন্তু এ ধরনের কোনও ঘটনা যাতে না ঘটে সেটা তো ম্যানেজারের দেখতে হবে।’’

এ দিকে বিশ্বকাপের ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট যশস্বী জয়সওয়ালের ট্রফি ভেঙে গিয়েছিল। গতকাল তা মেরামত করে দেওয়া হয়েছে। অনেকে মনে করছেন রাগের মাথায় ট্রফি ভেঙে দিয়েছেন যশস্বী। কিন্তু সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে এক কর্মকর্তা বলেন, যাতায়াতের পথে ভেঙে গিয়েছিল ট্রফি। এ ধরনের ঘটনা অস্বাভাবিক কিছু নয়।’’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category