শনিবার, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৯




মাদকের হাত থেকে যুব সমাজকে রক্ষায় খেলাধুলার বিকল্প নেই ……. এড.নুরুল আমিন রুহুল এমপি

নূরে আলম নূরীঃ  চাঁদপুর-২ নির্বাচনী আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এড. নুরুল আমিন রুহুল বলেন, তরুণ প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতার আদর্শ বুকে ধারণ করতে হবে। বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় তাদের অবদানের কথা জানতে হবে। বঙ্গবন্ধুর কল্যাণে আমরা একটি স্বাধীন রাষ্ট্র পেয়েছি।

তিনি আরো বলেন, মাদকের হাত থেকে যুব সমাজকে বাঁচাতে হলে খেলাধুলার বিকল্প নেই। বঙ্গবন্ধুর কন্যা ফুটবলের হারানো গৌরব ফেরাতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে। সারা দেশে বিভিন্ন ফুটবল টুনামেন্ট আয়োজন করছে। নারীদের খেলার মান বৃদ্ধি পেয়েছে।

মতলব উত্তর উপজেলার শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অনুর্ধ্ব-১৭ ফুটবল টুর্নামেন্ট-১৯ইং এর শুভ উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেছেন।

মতলব উত্তর উপজেরা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী খেলায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন খান সুফল।

উদ্বোধনী খেলায় উপস্থিত ছিলেন, সহকারী ককমিশনার(ভূমি)শুভাশীস ঘোষ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মুজাম্মেল হক, মতলব উত্তর থানার ওসি(তদন্ত)মোরমেদুল আলম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাজাহান প্রধান, ঢাকা শাহাবাগ থানা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আক্তার হোসেন, ছেংগারচর পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি হাসান কাইয়ূম চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা গাজী মুক্তার হোসেন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান জহির, সহ-সভাপতি ইয়ার হোসেন, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক প্রভাষক একে আজাদ, উপজেলা কৃষকলীগের সাধারন সম্পাদক জিএম ফারুক, চাঁদপুর জেলা যুবলীগ নেতা গাজী শাখাওয়াত হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক এড.মহসীন মিয়া মানিক, মতলব ডিগ্রী কলেজের সাবেক জিএস রহমত উল্যাহ চৌধুরীসহ রাজনৈনিক নেতৃবৃন্দ, প্রশাসনিক কর্মকর্তাগন ও বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।

তীব্র প্রতিদ্বন্ধীতাপূর্ন খেলাটি নির্ধারিত সময় গোলশূন্য ড্র হওয়ার পর খেলা সরাসরি ট্রাইব্রেকারে গড়ায়। ট্রাইব্রেকারে ছেংগারচর পৌর ফুটবল একাদশ ৪-৩ গোলের ব্যাবধানে দুর্গাপুর ফুটবল একাদশকে পরাজিত করে। খেলার ধারা বর্ননা করেন সাংবাদিক ঢালী কামরুজ্জামান হারুন।

খেলায় রেফারীর দায়িত্ব পালন করেন জাকির হোসেন তার সহকারী রেফারী হিসাবে ছিলেন আক্তার হোসেন এবং জামাল উদ্দিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category