রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৯




মতলব উত্তরে ভাগ্নের হাতে মামা খুনঃ আদালতের রায়ে ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার কাপড় ব্যবসায়ী আব্দুল মতিন প্রধানকে হত্যার দায়ে ৪ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও প্রত্যেককে ৩০ হাজারটাকা করে জরিমানা করেছেন আদালত। রবিবার দুপুর ১টায় চাঁদপুরের জেলা ও দায়রা জজ মোঃ জুলফিকার আলী খার এই রায় দেন।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, মতলব উত্তর উপজেলার কোয়রকান্দি এলাকার আব্দুল কাদির ফকিরের ছেলে আবুল কালাম (৫০), মো. বাবুল (৪২), মো. খোকন (৪৫) ও কিশোরগঞ্জ জেলার কাটিয়াদী থানার আশুরকান্দা এলাকার ফল্লু মিয়ার ছেলে মো. লিটন (১৯)। মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৫ সালের ৫ জুলাই রাতে আব্দুল মতিন প্রধান নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে সুজাতপুর বাজারের দিকে যাচ্ছিলেন। রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঘোড়াইর কান্দি গ্রামে পৌঁছলে অজ্ঞাত ব্যক্তির তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে রাস্তায় ফেলে রাখে। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। ঢামেক হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে নাছিমা বেগম বাদি হয়ে ২০১৫ সালের ২৭ জুলাই উল্লেখিতদের অভিযুক্ত করে মতলব উত্তর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মতলব উত্তর থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু হানিফ ২০১৫ সালের ১৩ ডিসেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

নাছিমা বেগম বলেন, আমার বাবা ও আসামিরা সম্পর্কে মামা-ভাগ্নে। তাদের সম্পত্তি নিয়ে সমস্যায় বাবা সালিশি বৈঠকের রায় দেন। ওই রায় তাদের পক্ষে না হওয়ায় বিরোধ দেখা দেয়। সে থেকে তারা পরিকল্পিতভাবে বাবাকে হত্যা করে।

সরকার পক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মো. আমান উল্লাহ বলেন, আসামিদের উপস্থিতিতে এই রায় পড়ে শোনানো হয়। আদালত ১৮ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ এবং মামলার নথিপত্র পর্যালোচনা করে এই রায় দেন। সরকার পক্ষের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) ছিলেন মোক্তার হোসেন অভি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category