মঙ্গলবার, আগস্ট ১৮, ২০২০




মতলব উত্তরে ওয়াসিম হত্যার আসামী মিজান ও আরিফকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে সোপর্দ

স্টাফ রিপোর্টারঃ চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার নয়াকান্দি শিকিরচর গ্রামের ওয়াসিম হত্যা মামলার প্রধান
আসামী মিজানুর রহমান ওরফে বালু মিজান ও আরিফ হোসেনকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে চাঁদপুর আদালতে সোপর্দ করে থানা পুলিশ। ১৮ আগষ্ট (মঙ্গলবার) সকালে আটককৃত আসামীদের আদালতে প্রেরণ করা হয়।

মতলব উত্তর থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওয়াসিম হত্যা মামলার প্রধান আসামী মিজানুর রহমান ওরফে বালু মিজান ও আরিফ হোসেনকে ঢাকার উত্তরা ও আশপাশের এলাকা থেকে (রোববার রাতে) আটক করেছে।

জানা গেছে, মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দিন মৃধা ও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) শাহজাহান কামালের নির্দেশ উপ-পরিদর্শক (এসআই) আফসার উদ্দিন ও এসআই হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স ঢাকা সিটির উত্তরার আশপাশের বিভিন্ন স্থানে দীর্ঘ ৪৮ ঘন্টা অভিযান চালিয়ে তাদের দুই সহোদরকে আটক করে। অন্যান্য আসামীদের আটকের জন্য অভিযান চলছে বলে জানান মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আফসার উদ্দিন।
পুলিশ আরো জানায়, ২৯ জুন দিবাগত রাতে মতলব উত্তরের ছেংগারচর পৌরসভার নয়াকান্দি শিকিরচর গ্রামে আটককৃত আসামীরা আপন চাচাতো ভাই ওয়াসিমকে হত্যা করে। পরদিন ৩০ জুন সকালে মতলব উত্তর থানা পুলিশ ওয়াপদা খাল থেকে ওয়াসিমের লাশ উদ্ধার করে। ওই দিনই
ওয়াসিমের মা বাদী হয়ে মিজানুর রহমান ওরফে বালু মিজানকে প্রধান আসামি করে ৬ জনের নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা করেন। ঘটনার পর থেকেই আসামিরা পলাতক ছিল। ঘটনার ৪৮দিন পর দুই আসামীকে আটক করতে সক্ষম হয় থানা পুলিশ।

নিহতের স্ত্রী ইয়াছমিন আক্তার বলেন, দুই আসামী আটক হওয়ায় আমরা স্বস্থি প্রকাশ করছি। বাকী আসামীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসির দাবি করছি।মামলার বাদি জাহানারা বেগম বলেন, আমার সন্তানের হত্যার সুষ্ঠু বিচার চাই। আর যেন কোন মায়ের কোল আমার মতো খালি না হয়।

মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নাসির উদ্দিন মৃধা বলেন, জমি জমা বিরোধে ওয়াসিমকে হত্যা করে ওয়াপদা খালে ফেলে লাশ গুমের চেষ্টা করে। ঘটনার পর থেকেই আসামী পলাতক ছিল। আমি’সহ থানার বেশির ভাগ অফিসার করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় আসামীদের ধরতে
বিলম্ব হয়। আটককৃত আসামী মিজান ও আরিফকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে চাঁদপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকী আসামীদের আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category