মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ৮, ২০২০




মতলব উত্তরে আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

রেদোয়ান খান রাজনঃ ‘কোভিড-১৯ সংকটঃ সাক্ষরতা শিক্ষায় পরিবর্তনশীল শিখন-শেখানো কৌশল এবং শিক্ষাবিদদের ভূমিকা’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস-২০২০ পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার সকালে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়ে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন-উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্নেহাশীষ দাশ।

এরপর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের আয়োজনে নবাগত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্নেহাশীষ দাশকে ফুল
দিয়ে বরণ করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আব্দুল কাইয়ুম খানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির
সাধারণ সম্পাদক সরকার মো. আবুল কালাম আজাদের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আশরাফুল আলম, একাডেমিক সুপারভাইজার সাইফুল ইসলাম, বদরপুর আদমিয়া ফাযিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মো. মিজানুর রহমান সরকার, লুধুয়া হাইস্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. জাকির হোসেন, দশানী মোহনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনসুর আহমেদ, নাউরি আহম্মদীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক একেএম তাজুল ইসলাম, সুজাতপুর নেছারিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শাহজালাল, নাওভাঙ্গা জয়পুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খান মো. শাহআলম, দুর্গাপুর জনকল্যাণ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবু স্বপন কুমার সুত্রধর, ধনাগোদা তালতলী হাইস্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ফারুকুল ইসলাম, নন্দলালপুর সামাদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সারোয়ার হোসেন প্রমুখ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্নেহাশীষ দাশ বলেছেন, একটি দেশ কত উন্নত তা নির্ভর করে দেশটির সাক্ষরতা হার
কত। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায়
আসার পর থেকে দেশের নিরক্ষর জনগোষ্ঠীকে সাক্ষর জ্ঞান সম্পন্ন করতে বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করে তা বাস্তবায়ন করে চলেছে। সরকারের রূপকল্প ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নসহ দেশের সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে সাক্ষরতার কোন বিকল্প নেই। ’

তিনি বলেন, আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে শিক্ষা অপরিহার্য। শিক্ষার হার উন্নয়নের মাপকাঠিও বটে। যে জাতি যত
বেশি শিক্ষিত, সে জাতি তত বেশি উন্নত। বর্তমান সরকার শিক্ষার প্রসারও নিরক্ষরতামুক্ত বাংলাদেশ গড়তে দৃঢ়
প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। তাই আনুষ্ঠানিক শিক্ষাকে গুরুত্ব দেয়ার পাশাপাশি উপানুষ্ঠানিক শিক্ষাকে কার্যকর মাত্রা প্রদানের
জন্য উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা আইন ২০১৪ প্রণয়ন করা হয়েছে। এতে করে ভবিষ্যতে দেশে আর কোন নিরক্ষর জনগোষ্ঠী
থাকবে না।
তাই ঘরে নিজের ছেলে-মেয়েদের পাশাপাশি নিরক্ষর গৃহকর্মীদেরকেও সাক্ষর জ্ঞান করে তৈরি করতে সকলের প্রতি আহবান জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্নেহাশীষ দাশ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ছেঙ্গারচর সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বেনজির আহমদ, এখলাছপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান, মোজাদ্দেদীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, মমরুজকান্দি সপ্তগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খোরশেদ আলম, গাজীপুর কেএল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ বিল্লাল হোসেন, চরপাথালিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জহিরুল ইসলাম, নিশিন্তপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আরিফুল হক, বাগানবাড়ি আইডিয়েল একাডেমির প্রধান শিক্ষক আঃ আজিজ, ফতেপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ রজ্জব আলী, ইন্দুরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বশির উদ্দিন’সহ সকল প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকগণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category