সোমবার, এপ্রিল ২০, ২০২০




মতলবে স্বামী পরিত্যক্তা নারীর দোকান ভেঙ্গে ফেলার অভিযোগ

মতলব প্রতিনিধি: করোনা পরিস্থিতিতে মুদি দোকানের সামনে অধিক মানুষের ভিড়ের অযুহাতে স্বামী পরিত্যক্তা এক নারীর দোকান ভেঙ্গে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ১৭ এপ্রিল মতলব দক্ষিণ উপজেলার ডিঙ্গাভাঙ্গ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, উপজেলার উপাদী উত্তর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ওই গ্রামের মৃত এলাহী বক্সের মেয়ে জোনাকি তার মাদকাসক্ত স্বামীকে তালাক দিয়ে দুই সন্তানকে নিয়ে বাপের বাড়ি চলে আসে। পরে স্থানীয় একটি এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে বাড়ির সামনে একটি মুদি দোকান দেয়। আর এই দোকানের আয়-ব্যয় দিয়েই সে তার সংসার চালিয়ে আসছিলো। এদিকে করোনা পরিস্থিতিতে দোকানের সামনে অনেক মানুষের আড্ডা হয় বলে অভিযোগ তুলে বাড়ির লোকজন। পরে তারা ঘটনার দিন সকালে জোনাকির দোকান ভেঙ্গে দিয়ে সকল মালামাল বসতঘরে ফেলে রেখে যায়।

স্থানীয়রা জানান, মাদকাসক্ত স্বামীকে তালাক দিয়ে ঋণ নিয়ে এই দোকান দেয় জোনাকি। মুদি মালামালের সাথে চা বিক্রি করলেও করোনা ভাইরাসের কারণে তা বন্ধ রেখে শুধুমাত্র মুদি মালামাল বিক্রি করতো। তবে স্থানীদের মধ্যে অন্যরা অভিযোগ করে বলেন, বর্তমান সময়ে সে মুদি মালামালের সাথে চা বিক্রি করতো বলেই তার দোকানের সামনে অনেক মানুষের ভিড় থাকতো। তাকে অনেক বার বলার পরও সে চা বিক্রি বন্ধ করেনি।

জোনিক অভিযোগ করে বলেন, করোনার কারণে আমি চা বিক্রি বন্ধ করে দিয়ে শুধুমাত্র মুদি মালামাল বিক্রি করতাম। যারা দোকানে আসতো তাদের সদাই নিয়ে তাড়াতাড়ি চলে যেতে বলতাম। কিন্তু আমার বাড়ির আঃ বকাউল, দুলাল, শাহদাত, মানিক, হাসান, কাউছারসহ কয়েকজন মিলে জোড় করে আমার দোকান ভেঙ্গে দোকানের সকল মালামাল বাড়িতে ফেলে রেখে গেছে। এখন আমি কী দিয়ে ঋণের টাকা জোগাড় করবো, কিভাবে দুই সন্তানের মুখে খাবার তুলে দিবো?

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শহিদ উল্যাহ প্রধানের কাছে এই নিয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, অতিশীঘ্রই এই বিষয়টি সমাধান করে দিবো, এটা নিয়ে লিখার দরকার নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category