রবিবার, ফেব্রুয়ারি ২, ২০২০




ভারতের কাছে হোয়াইটওয়াশ হলো স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড

মো.নাছির উদ্দিনঃ পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি ৪-০ তে জিতে আগেই সিরিজ জয় নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল সফরকারী ভারতের। সুযোগ ছিল স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডকে তাদের ঘরের মাঠে প্রথমবার কোনও টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করার৷ অন্যদিকে কিউইদের সামনে ধবলধোলাইয়ের হাত থেকে বাঁচার সুযোগ ছিলো। রস টেইলররা সুযোগটাকে কাজে লাগাতে না পারলেও রোহিত শর্মারা সুযোগটা যথাযথ কাজে লাগিয়ে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে কিউইদের ধবলধোলাইয়ের লজ্জা দিলো।

নিউজিল্যান্ডের বে-ওভালে সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতে নিউজিল্যান্ডকে ৭ রানে পরাজিত করলো ভারত৷ টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে সফরকারী ভারত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেটের বিনিময়ে ১৬৩ রান সংগ্রহ করে। নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও কেন উইলিয়ামসনকে ছাড়াই মাঠে নামে দু’দল। রোহিত শর্মার অধিনায়কোচিত হাফসেঞ্চুরির সাথে লোকেশ রাহুল ও শ্রেয়াস আইয়ারের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে সম্মানজনক স্কোর সংগ্রহ করে ভারত।

১৬৪ রানের জয়ের লক্ষে ব্যাট করতে নেমে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটের বিনিময়ে ১৫৬ রানের বশি তুলতে পারেনি। বিফলে যায় টিম সেইফার্ট ও রস টেলরের জোড়া হাফসেঞ্চুরি৷ জসপ্রীত বুমরাহ দুরন্ত বোলিং করে ১২ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট লাভ করে ম্যাচ সেরার পুরস্কার লাভ করেন।

তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ৬০ রান করেন রোহিত শর্মা। কাফ মাসলে টান ধরায় রিটায়ার্ড হয়ে মাঠ ছাড়তে হয় ভারত অধিনায়ক কে। তার আগে ৪১ বলের ইনিংসে ৩টি করে চার-ছক্কা মারেন তিনি। লোকেশ রাহুল ৩৩ বলে ৪৫ ও শ্রেয়াস আইয়ার ৩১ বলে ৩৩ রান করেন৷

অপরদিকে ১৬৪ রানের জয়ের তাড়ায় ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৭ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে নিউজিল্যান্ড। সেইফার্ট ও রস টেইলরের ৯৯ রানের জুটি বিপর্যয় কাটিয়ে জয়ের স্বপ্ন দেখায় স্বাগতিকদের। কিন্তু দলীয় ১৩৩ রানের মাথায় সেইফার্ট ও টেইলরসহ আরও দুই ব্যাটসম্যান আউট হয়ে গেলে মূহুর্তেই ৭ উইকেটে ১৩৩ রানে পরিণত হয় কিউইরা। মূলত তখনই পরাজয় অনেকটা নিশ্চিত হয়ে যায় টিম সাউদির নেতৃত্বাধীন স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের।

সেইফার্ট ৫টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে ৩০ বলে ৫০ এবং ক্যারিয়ারের শততম আমন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে নেমে ৫টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ৪৭ বলে ৫৩ রান করেন রস টেইলর৷ শেষ ওভারে ২টি ছক্কার সাহায্যে ইস সোধি ১৬ রান করলেও তা কেবল পরাজয়ের ব্যবধানই কমিয়েছে।

পুরো টূর্নামেন্টে অসাধারণ ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের সুবাদে লোকেশ রাহুল সিরিজ সেরা নির্বাচিত হন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category