মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২০




বাংলাদেশ সিরিজে ১৯ কোটি টাকা ক্ষতি পিসিবির

মো. নাছির উদ্দীন : অনেক নাটকীয়তা আর অনিশ্চয়তার অবসান ঘটিয়ে পাকিস্তান সফরে রাজি হয়েছে বাংলাদেশ। ইতিমধ্যেই খেলে এসেছে তিন পর্বের সিরিজের প্রথম পর্বও। যেখানে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচটি অবশ্য বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়েছে। দ্বিতীয় পর্বের খেলাও আসন্ন। তবে এরই মধ্যে চাঞ্চল্যকর এক তথ্য প্রকাশ করেছে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম দৈনিক ডন। তাদের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে বাংলাদেশ সিরিজ আয়োজন করতে গিয়ে অনিশ্চয়তার মুখে ২.২৫ মিলিয়ন ডলার বা ১৯ কোটি টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি)।

তবে এখানে বাংলাদেশের কোনো দায় নেই। কেননা পিসিবি এই ক্ষতির সন্মুখীন হয়েছে মিডিয়া স্বত্ব নিয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে দর-কষাকষিতে।

পিসিবির মিডিয়া স্বত্বের মালিকানা ছিল ভারতীয় এক সংস্থার কাছে। সেখান থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণে অর্থ পেত পিসিবি। ২০১৫ সালে করা সেই চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়েছে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে এসে। চুক্তি অনুযায়ী শ্রীলংকা সিরিজই ছিল তাদের শেষ সিরিজ।
তবে বিপত্তি বাধায় পিসিবি। পিসিবির দাবী, ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত পাকিস্তানের সব খেলা সম্প্রচারের দায়িত্ব সেই প্রতিষ্ঠানের। সেই সুবাদে আরও ৬ মিলিয়ন ডলার পাওয়ার কথা পিসিবির। বাংলাদেশের সঙ্গে তিনটি টি-টোয়েন্টি, দুটি টেস্ট ও এক ওয়ানডে প্রচারের স্বত্ব ওই প্রতিষ্ঠানের দাবী করে সেখান থেকে অর্জিত অর্থের লভ্যাংশ চায় বোর্ড।

কিন্তু তিন ধাপে বাংলাদেশের সিরিজটি অনুষ্ঠিত হওয়ায় সংস্থাটি তা দিতে অস্বীকৃতি জানায়। তারা দাবী করেন, সিরিজ আয়োজনে তারা পর্যাপ্ত সময় পাননি। মাত্র ৭ দিন সময় পেয়েছেন। এতে করে ঠিকঠাক মতো সিরিজ সম্প্রচার করা সম্ভব হয়নি। ফলে তারা নিজেরাই আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন।

তবে অনেক আলোচনার পর সমঝোতায় এসেছে দুই পক্ষই। বোর্ডকে তারা ৩.৭৫ মিলিয়ন ডলার দিতে রাজি হয়েছে। ফলে হিসেব মতে ২.২৫ মিলিয়ন ডলার ক্ষতি হচ্ছে পিসিবির। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১৯ কোটি টাকারও বেশি।

আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় পর্বের খেলা। রাওয়ালপিন্ডিতে এদিন মাঠে গড়াবে প্রথম টেস্ট। আর এই সিরিজ খেলতে আজ সন্ধ্যায় বাংলাদেশ দল দেশ ছেড়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category