শনিবার, জানুয়ারি ১৮, ২০২০




বঙ্গবন্ধু বিপিএল : খুলনাকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো শিরোপা জিতলো রাজশাহী রয়্যালস

মো. নাছির উদ্দীন: আগেই নির্ধারিত ছিল নতুন চ্যাম্পিয়ন পাবে এবারের বঙ্গবন্ধু বিপিএল। দেখার ছিল কোনো দলের হাতে উঠে এবারের শিরোপা, রাজশাহী নাকি খুলনা? শেষতক পদ্মার পাড়ের রাজশাহীর হাতেই শোভা পেল বঙ্গবন্ধু বিপিএলের সপ্তম আসরের শিরোপা।

১৭১ রানের জয়ের লক্ষে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১১ রানে দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ইনফর্ম নাজমুল হোসেন শান্ত ও মেহেদী হাসান মিরাজকে হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে খুলনা টাইগার্স।

সেখান থেকে টূর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক প্রোটিয়াস ব্যাটসম্যান রাইলি রুশো ও শামসুর রহমানের ৭৪ রানের পার্টনারশিপ জয়ের স্বপ্ন দেখায় খুলনাকে। রুশো ২৬ বলে ৩৭ রান করে দলীয় ৮৫ রানে আউট হয়ে গেলে আবারও ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে খুলনা। অপরপ্রান্তে হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করা শামসুর রহমানও ৪৩ বলে ৫২ রান করে সাজঘরে ফিরে গেলে শিরোপা জয় ধূসর হয়ে যায় খুলনা টাইগার্সের। যেটুকু সম্ভাবনা ছিল অধিনায়ক মুশফিক রহিমকে ঘিরে।

টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান ১৫ বলে ২১ রানে আউট হয়ে গেলে খুলনার পরাজয় সময়ের ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। শেষ পর্যন্ত তারা সংগ্রহ করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৪৯ রান। রাজশাহীর পক্ষে আন্দ্রে রাসেল, মোহাম্মদ ইরফান ও কামরুল ইসলাম রাব্বি ২টি করে উইকেট লাভ করে।
টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মুশফিকুর রহীমের খুলনা টাইগার্সকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেয় আন্দ্রে রাসেলের রাজশাহী রয়্যালস। প্রথমবারের মতো ফাইনালে ওঠা খুলনাকে জিততে হলে ১২০ বলে করতে হতো ১৭১ রান। ফাইনালের মত বড় ম্যাচে মুশফিকের জন্য এটা ছিল কঠিন এক চ্যালেঞ্জ।

আজ বঙ্গবন্ধু বিপিএলের সপ্তম আসরের ফাইনালে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে চার উইকেট হারিয়ে ১৭০ রান করে খুলনা টাইগার্স। ধীরে চলো নীতিতে লিটনের সঙ্গে ব্যাটিং করলেও ক্রিজে বেশিক্ষণ থাকতে পারেননি আফিফ হোসেন। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে ব্যক্তিগত ১০ রান করে সাজঘরে ফেরেন তিনি।

সর্বোচ্চ ৫২ রান করেন ইরফান শুক্কুর। ৩৫ বলে ৬ চার ও দুই ছয়ের সাহায্যে তিনি এ রান করেন। লিটন দাস ২৮ বলে করেন ২৫ রান। শেষে দিকে মোহাম্মদ নাওয়াজ ও আন্দ্রে রাসেলের ঝড়ো ইনিংসে ১৭০ রান করে রাজশাহী রয়্যালস। অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল ১৬ বলে ২৭ এবং মোহাম্মদ নওয়াজ ২০ বলে ৪১ রান করে অপরাজিত ছিলেন।

খুলনার হয়ে সর্বোচ্চ দুটি উইকেট নেন মোহাম্মদ আমির। একটি করে উইকেট নেন রবি ফ্রাইলিংক ও শাহীদুল ইসলাম।

২১ রানে জয়ী হয়ে প্রথমবারের মতো জাতির জনকের নামে অনুষ্ঠিত এবারের বঙ্গবন্ধু বিপিএলের শিরোপা জিতলো রাজশাহী রয়্যালস। রাজশাহীর অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল ম্যান অব দ্য ম্যাচের পাশাপাশি টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কারও লাভ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category