শুক্রবার, ডিসেম্বর ৬, ২০১৯




ফরিদগঞ্জ গৃদকালিন্দিয়া বাজারে একটি দোকানে আগুন লেগে অর্ধ কোটি টাকার ক্ষয় ক্ষতি

এস.এম ইকবাল: ফরিদঞ্জ দক্ষিন ইউনিয়নের ১৬নং রুপসা গৃদকালিন্দিয়া বাজারে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটে থেকে আগুনে লেগে বাজারের পুরাতন রোড (ডিসি রোডের দক্ষিন মাথায়)কাদের ইলেকট্রিক এন্ড হার্ডওয়ারে আগুন লেগে অর্ধ কোটি টাকার ক্ষয় ক্ষতি।

৫ ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার) রাত ১০.৩০ মিনিট নাগাদ কাদের হার্ডওয়ারে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। কাদের হার্ডওয়ারের পার্শ্ববর্তি ব্যবসায়ী মো. সুজন তার নিজ দোকান বন্ধ করে যাওয়ার সময় দেখতে পায় কাদেরের দোকান থেকে ধোঁয়া বের হচ্ছে দেখে ডাক চিৎকার করলে বাজারের বিভিন্ন দোকানদার এসে আগুন নেভানোর চেষ্টাকরে এবং পার্শ্ববর্তি জেলার রায়পুর থানার ফায়ার সার্ভিসের ৭ কর্মী, গৃদকালিন্দিয়া পুলিশ পাড়ির পুলিশ সদস্য এবং স্থানীয়দের সহযোগিতায় আগুন নেভানো সক্ষম হলেও দোকানে থাকা নগদ ১৫ হাজার টাকা ও দোকানের বকেয়া খাতা সহ সামনের অংশের মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যাবসায়ী আব্দুল কাদেরেরর ম্যানেজার রাব্বি জানান, বৃহষ্পতিবার রাত ৮.৩০ মিনিটের সময় আমি দোকান বন্ধ করে বাড়িতে চলে যাই। রাত ১১ টার সময় বাজার থেকে আমাকে মোবাইল ফোন করে জানান দোকানে আগুন লেগেছে দ্রুত বাজারে এসে দেখি ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ও পুলিশ সহ আশেপাশের লোকজন আগুন নেভানোর চেষ্টা করছেন।
এসময় আব্দুল কাদিরের বাবা আ: মতিন মিয়া হাউমাউ করে কাঁদতে কাঁদতে বলতে থাকেন আমার ছেলে কাদের এখন কিকরে চলবে, আমার ছেলের সব শেষ হয়ে গেছে, মানুষের কাছ থেকে ৪৫/৫০ লক্ষ টাকা পাবে, এখন এই টাকা মানুষের কাছ থেকে কিভাবে তুলবে, বাকি হিসাবের খাতা গুলো সব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

দোকানের মালিক আ: কাদের বলেন, আমি ব্যক্তিগত কাজে গতকাল ঢাকায় গিয়েছিলাম, রাত ১০.৩০ মিনিটে আমাকে বাজার থেকে মোবাইলে ফোন করে যানান আমার দোকানে আগুন লেগেছে, আমি এই কথা শুনেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেছিলাম জ্ঞান ফেরার পর জানতে পারলাম আল্লাহ্র রহমতে আমার পুরো দোকান পুড়ে যায়নি, কিন্তু ক্যাসটেবিল ও দোকানের সকাল দরনের বকেয়া হিসাবের খাতাসহ সকল দরনের প্রয়োজনিয় কাগজ পত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এখন আমি কি করে ব্যাংকের ঋনের টাকা পরিশোধ করব, আর মানুষের কাছ থেকে কি বাভে বকেয়া টাকা আদায় করবো। কত টাকার ক্ষতি হয়েছে যানতে ছাইলে কাদের ও দোকানের ম্যানেজার বলে ১০ থেকে ১৫ লক্ষ টাকার মালামালসহ প্রয় অর্ধ কোটি টাকার ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে। এবং আগুনের তাপে ও পনির কারনে দোকানের প্রায় সকল দরনের মালামাল নষ্ট হয়ে গেছে।

বাজারের বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী পরান, কাজাল ও অন্যান্য ব্যাবসায়ীরা বলেন এই পর্যন্ত গৃদকালিন্দিয়ার বাজারে আগুন লেগেছে ৮ বার আগুন লাগার ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category