বুধবার, আগস্ট ২১, ২০১৯




ফরিদগঞ্জে কমিটিবিহীন যুবদল-ছাত্রদলে বাড়ছে সাংগঠনিক সংকট

এস.এম ইকবালঃ চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলা ও পৌরসভায় কমিটি ছাড়াই চলছে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ভ্যানগার্ডখ্যাত যুবদল ও ছাত্রদলের সাংগঠনিক কার্যক্রম। সংগঠন দুটির কার্যক্রমকে ঘিরে বাড়ছে নানামুখী সংকট।

বিএনপির কর্মীদের আশংঙ্কা সংগঠন দু’টির নের্তৃত্বশূণ্যতা আগামী দিনে এই উপজেলাতে বিএনপির আন্দোলন সংগ্রামকে বাধাগ্রস্ত করবে।

বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালে ডিসেম্বর মাসে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পূর্বে ফরিদগঞ্জ উপজেলা এবং পৌর যুবদল ও ছাত্রদলের কমিটি স্থগিত করে চাঁদপুর জেলা কমিটি।

এই স্থগিত আদেশের মাধ্যমে সংগঠন দুটির তৃনমূলের কর্মীরা নের্তৃত্বহীন হয়ে পড়ে। পরবর্তীর্তে ৯ মাস পেরিয়ে গেলেও বিএনপির গুরুত্বপূর্ণ এই দুটি সংগঠনের নতুন কমিটি গঠনে ব্যর্থতার পরিচয় দেয় জেলা কমিটি।

এতে করে সংগঠন দুটি অনেকটা হ-য-ব-র-ল হয়ে পড়ে। দীর্ঘ ৯ মাসেও নতুন কমিটি না হওয়ায় যুবদল ও ছাত্রদলের উপজেলা, জেলা ও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ একে অন্যকে দোষারোপ করছেন। আবার উপজেলা বিএনপির সমন্বয়হীনতাকে দায়ী করছেন কেউ কেউ।

এ দিকে কমিটি না থাকায় দলের পক্ষ থেকে যে সকল কর্মসূচি দেয়া হয়েছে তা পালনে ফরিদগঞ্জে ব্যাপক গ্রুপিং এর সৃষ্টি হয়। যুবদল ও ছাত্রদলের বিদায়ী নেতারা পৃথক ব্যানারে কর্মসূচি পালন করছেন। নেতাকর্মীদের মধ্যে বিরাজ করছে অসুস্থ প্রতিযোগিতা।

কেউ কেউ সংগঠনকে শক্তিশালী করার পরিবর্তে নিজেদেরকে অর্থবৃত্তশালী নেতার আস্থাভাজন অনুসারী হিসেবে জানান দিতে বেশি ব্যস্ত থাকতে দেখা যায়। সরকারি দলের বিভিন্ন কাজের আলোচনা-সমালোচনার পরিবর্তে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইজবুকে একে অন্যের সমালোচনায় মুখর থাকছেন।

উপজেলা যুবদল ও ছাত্রদলের তৃনমূলের কর্মীদের বক্তব্য, বিএনপির ডাকা আন্দোলন সংগ্রামের কর্মসূচি রাজপথে সফল করে যুবদল ও ছাত্রদলের ত্যাগি নেতাকর্মীরা। সে ক্ষেত্রে দীর্ঘ দিন কমিটি না থাকার কারণে সাংগঠনিক কার্যক্রমে সংকট তৈরি হবে। যুবদল ও ছাত্রদলে গ্রুপিং বাড়ছে। জেলা নেতৃবৃন্দের কাছে দ্রুত কমিটি দেয়ার দাবী জানান তারা।

এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মঞ্জুর হোসেন রনি এ প্রতিনিধিকে বলেন, সরকারের অসংখ্য মিথ্যা মামলা-হামলা, দমন পিড়নের পরও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা সক্রিয়। কিন্তু, কমিটি না থাকার কারণে সংগঠনের মধ্যে চরম বিশৃঙ্খলা বিরাজ করছে। আগামী দিনে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে মুক্ত করে দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলন সংগ্রামে রাজপথ চাঙ্গা রাখতে ফরিদগঞ্জে দ্রুত ছাত্রদলের নতুন কমিটি দেয়ার দাবী জানাচ্ছি।

অপরদিকে উপজেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন টেলু চাঁদপুর টাইমসকে বলেন, দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা ও পৌর যুবদলের সাংগঠনিক কার্যক্রম নেই বললেই চলে। যুবদলের ইউনিয়ন কমিটির অধিকাংশই করা হয়েছে অযোগ্যদের দিয়ে। এছাড়া গত ডিসেম্বর মাসে যুবদলের কমিটি বাতিলের পর যুবদলের নেতাকর্মীরা একেবারেই জিমিয়ে পড়েছে। তাই অনতিবিলম্বে যুবদলের নতুন কমিটি গঠন করা প্রয়োজন।

এ বিষয়ে উপজেলা যুবদলের সাবেক আহ্বায়ক মো. নাছির উদ্দিন পাটওয়ারী চাঁদপুর টাইমসকে বলেন, উপজেলা যুবদলের কমিটি বাতিলের বিষয়টি পত্রিকার মাধ্যমে জেনেছি; এ সংক্রান্ত কোন পত্র হাতে পাইনি। তবে ইউনিয়ন কমিটির মাধ্যমে যুবদলের কার্যক্রম চলমান রয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক আহ্বায়ক মো. জাহাঙ্গীর আলম নান্টু বলেন, কমিটি বাতিলের বিষয়টি পত্রিকার মাধ্যমে জেনেছি। তবে আমি দায়িত্বে থাকা অবস্থায় চেষ্টা করেছি ছাত্রদলকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করে রাজপথের আন্দোলন সংগ্রামে সামনে থেকে নেতৃত্ব প্রদান করেত।

এ বিষয়ে ছাত্রদল চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি মো. ইমাম হোসেন চাঁদপুর টাইমসকে বলেন, ছাত্রদলের কেন্দ্রিয় কমিটির কাউন্সিল আগামী ১৪ সেপ্টম্বর। কাউন্সিলের পর কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী উপজেলা ও পৌরসভার নতুন কমিটি দেয়া হবে। কেন্দ্রের নির্দেশনার কারণে ইউনিট কমিটি গঠনে বিলম্ব হচ্ছে।

যুবদল চাঁদপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক নূরুল আমিন খান আকাশ এ প্রতিনিধিকে জানান, আমরা আরো আগেই উপজেলা বিএনপির সাথে সমন্বয় করে ফরিদগঞ্জে যুবদলের কমিটি দিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু, সেখানকার বিএনপির নেতাদের সমন্বয়হীনতার কারনে সেটি পারিনি। পরবর্তীতে আবারো কমিটি গঠনের উদ্যোগ নিলে সারাদেশে যুবদলের ইউনিট কমিটি না করার জন্য কেন্দ্র থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়। কেন্দ্রের নির্দেশনা পাওয়া মাত্রই ফরিদগঞ্জ উপজেলা ও পৌর যুবদলের নতুন কমিটি গঠন করবো।

এ বিষয়ে জাতীয়তাবাদী যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক কামরুজ্জামান দুলাল চাঁদপুর টাইমসকে বলেন, ৯ মাস একটি উপজেলা কমিটিবীহিন থাকা দুঃখজনক। আমরা কেন্দ্র থেকে নতুন কমিটি না করার নির্দেশনা দিয়েছি মাত্র তিন সপ্তাহ আগে। তার আগে জেলা কমিটি কি করেছে। আপনার কাছ থেকে বিষয়টি যেহেতু জেনেছি এ বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখবো।

অপরএক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, অচিরেই আমরা ফরিদগঞ্জসহ সকল ইউনিট কমিটি ঘোষণার জন্য জেলাগুলোকে নিদের্শনা প্রদান করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category