বুধবার, মার্চ ১৩, ২০১৯




ফরিদগঞ্জে আওয়ামী লীগ মনোনীনত উপজেলা চেয়ারম্যন প্রার্থী নৌকার মাঝি রোমান দুর্বার গতিতে ছুটে চলেছেন

স্টাফ রির্পোটার: তারুণ্যের মূর্ত প্রতীক অ্যাডভোকেট মো. জাহিদুল ইসলাম রোমান। ছাত্রলীগের সাবেক এই নেতা চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীক পেয়ে দুর্বার গতিতে ছুটে চলেছেন। বিশাল কর্মীবাহিনী সাথে নিয়ে তিনি সকাল থেকে ম্যধরাত পর্যন্ত সমগ্র উপজেলা চষে বেড়াচ্ছেন। তিনি যেখানে যাচ্ছেন, সেখানে দলীয় নেতাকর্মী সহ সাধারণ মানুষের ঢল নামছে।

জানা যায়, গণপরিষদ সদস্য মরহুম অ্যাড. সিরাজুল ইসলামের পুত্র জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট জাহিদুল ইসলাম রোমান। তৎকালীন আওয়ামী লীগ বিরোধী দলে থাকা অবস্থায় সামনে থেকে জেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্ব দিয়ে তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেন তিনি। সেই সময়ই দলের উর্ধ্বতন নেতৃবৃন্দের নজরে চলে আসেন তিনি। দলের প্রয়োজনে নিঃস্বার্থে পদ-পদবীর আশা না করে কাজ করে গিয়েছেন দীর্ঘ দিন। যার ফল পেতে তাকে খুব একটা বেগ পেতে হয়নি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি চাঁদপুর-৪ ফরিদগঞ্জ আসনে দলের অন্যতম মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। ওই নির্বাচনে তিনি দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হন। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেও দলের সভানেত্রীর নির্দেশনা অনুসারে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান এবং নৌকাকে বিজয়ী করতে মাঠে নেমে পড়নে।

জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেষে ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা করে নির্বাচন কমিশন। ৪র্থ ধাফে অনুষ্ঠেয় ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কে পাচ্ছেন নৌকার মনোনয়ন। সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে তুলনামূলক সিনিয়র অনেক নেতাকে পিছনে পেলে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে যান সাবেক এই ছাত্র নেতা।
দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পর গত ২৬ ফেব্রুয়ারী তিনি মোটরযানের বিশাল বহর নিয়ে ফরিদগঞ্জে সহকারী রিটানিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়ন পত্র জমা দেন। নৌকার প্রার্থী রোমানের অগমন উপলক্ষে জন¯্রােত আছড়ে পড়ে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে। গত ২৮ ফেব্রুয়ারী চাঁদপুরে রিটানিং কর্মকর্তা তার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষনা করার পর দিনই তিনি আবারো নেমে পড়েন। ঝড়-বৃষ্টি বৈরি আবহাওয়া উপেক্ষা করে তার সাথে ছুটে চলে দলীয় নেতাকর্মী সমর্থকরা।
তিনি সন্তোষপুর, চান্দ্রা, কাঞ্চনপুর, ঘনিয়া ও সুবিদপুর দরবার শরীফে গিয়ে পীর মাশায়েখদের কবর জিয়ারত করছেন। পাশাপাশি আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতাদের কবর জিয়ারত করেন। উপজেলা ও ইউনিয়ন আ’লীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত বিশেষ বর্ধিত সভায় উপস্থিত থেকে নৌকায় ভোট চেয়ে বক্তব্য রাখছেন। জনবহুল হাট-বাজারে নেমে জনতার কাতারে মিশে যাচ্ছেন। গণমাধ্যমের স্থানীয় সংবাদকর্মীদের সাথে আলোচনা করছেন নির্বাচিত হয়ে জনগনের জন্য তিনি কি ধরনের সেবা করতে চান।
এ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমান বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে, জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান রেখে আমার মরহুম পিতা এ্যাড. সিরাজুল ইসলামের মত দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করে যেতে চাই। চেয়ারম্যান নয়, সকলের মাঝে ভাই হয়ে থাকতে চাই। জননেত্রী শেখ হাসিনার মিশন এবং ভিশন বাস্তবায়নে জনপ্রতিনিধি ও সাধারণ মানুষের মধ্যে দূরত্বে থাকবেনা। এছাড়া সকল বিভেদ দূর করে ফরিদগঞ্জে সাংগঠনিকভাবে আওয়ামী লীগকে সু-সংগঠিত করতে চাই।
তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ নামক ভূ-খন্ডের স্বপ্নদ্রষ্টা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা ও জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে উপজেলা পরিষদে যে সকল বরাদ্ধ আসবে তা শতভাগ মানুষের উন্নয়নে ব্যায় করবো।
এবিষয়ে ফরিদগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. মনির হোসেন এ প্রতিনিধিকে বলেন, ফরিদগঞ্জের মানুষের আশা-আকাঙ্খা, আস্থারস্থল, গণপরিষদ সদস্য মরহুম এ্যাড. সিরাজুল ইসলামের সুযোগ্য সন্তান জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমান। জননেত্রী শেখ হাসিনা তাকে নৌকা প্রতীকে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে পাঠিয়েছেন। ফরিদগঞ্জে উন্নয়নের প্রতীক নৌকার গণজোয়ার বইছে। সকল শ্রেণি পেশার মানুষ এ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমানকে ভোট দেওয়ার জন্যে উন্মোখ হয়ে আছে। ২৪ মার্চ অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে নৌকা বিপুল ভোটে বিজীয় হবে বলে আমি বিম্বাস করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category