মঙ্গলবার, মার্চ ১৯, ২০১৯




ফরিদগঞ্জবাসীর সমর্থন ও সহযোগীতা চাই ————-অ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমান

 

এস এম ইকবাল:  ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমান বলেছেন, ‘ আমি ফরিদগঞ্জবাসীর সহযোগীতা চাই, সমর্থন চাই। আমি আপনাদের কাছে প্রতিশ্রুতবদ্ধ। যদি আমি আপনাদের মূল্যবান ভোটে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হই কথা দিচ্ছি সব সময় আপনাদের পাশে থাকবো। জনগণের কল্যাণে কাজ করবো। ফরিদগঞ্জের কল্যাণে কাজ করবো। আমি একা নই, আপনাদের সকলের সহযোগীতা নিয়ে একটি আধুনিক সুযোগ সুবিধা সম্মিলিত ফরিদগঞ্জ উপজেলা গড়তে চাই। শেখ হাসিনার উন্নয়ন কোন নির্দিষ্ট দলের জন্য নয়। রাস্তা পাকা হলে, বিদ্যালয়ের উন্নয়ন হলে সকল দলের লোকজন এর সমান সুযোগ সুবিধা ভোগ করবে।

মঙ্গলবার বিকেলে রুপসা উত্তর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে রুপসা আহম্মদিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত জনসভায় তিনি এসকল কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ‘প্রিয় ফরিদগঞ্জবাসী আমরা সবাই ফরিদগঞ্জের উন্নয়ন চাই। শেখ হাসিনার নৌকা মার্কা হচ্ছে উন্নয়নের প্রতীক। ফরিদগঞ্জবাসীর উন্নয়নের স্বার্থে নৌকার বিজয় নিশ্চত করতে হবে। নৌকার প্রতি যদি আমার অকুন্ঠ সমর্থন ব্যক্ত করতে না পারি, তাহলে আমরা ফরিদগঞ্জবাসী শেখ হাসিনার উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হবো, আমরা পিছিয়ে যাবে। ২০০৮ সালে এখানকার মানুষের ভূল সিদ্ধান্তের কারণে ৫ বছর উন্নয়ন বঞ্চিত হয়েছে। পরবর্তী সময় বিনা ভোট, বিনা প্রতিদ্বন্ধীতার এমপির বদলোতে এখানে যে উন্নয়ন হয়েছে সে উন্নয়ন কিন্তু আমাদের পাশ্ববর্তী উপজেলা থেকে অনেক কম। পাশ্ববর্তী উপজেলাগুলো ফরিদগঞ্জ থেকে অনেক বেশি অগ্রসরমান।’

ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি নাজিম পাটওয়ারীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক সুলতান আহম্মেদ রিপনের পরিচালনায় সভায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সাহেদ সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. হারুন অর রশিদ সাগর, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আবুল কাসেম কন্ট্রাকটার, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল আমিন কাজল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি আমির আজম রেজা, উপজেলা আ’লীগের সহ সভাপতি বাবুল পাটওয়ারী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান আজাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান ওমর ফারুক ফারুকী, ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলী বিএসসি, উপজেলা আ’লীগের সাংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য মো. মশিউর রহমান মিটু, উপজেলা আ’লীগের সদস্য মোহাম্মদ হোসেন মিন্টু পাটওয়ারী, মোহাম্মদ আলী মজুমদার, খোরশেদ আলম মিন্টু, জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি শেখ মো. জহির, সাবেক সভাপতি বিনয় ভূষন মজুমদার, জেলা পরিষদের সদস্য মো. সাইফুল ইসলাম রিপন, পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কামরুল হাসান সাউদ, সাধারণ সম্পাদক মো. মনির হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম সুমন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কাউছারুল আলম কামরুল প্রমুখ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category