শুক্রবার, মে ১৫, ২০২০




পিছু হটলেন আশরাফু!

মো. নাছির উদ্দীন : করোনাভাইরাসের মোকাবেলায় সাধ্যমতো এগিয়ে আসছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ও বর্তমান ক্রিকেটাররা। অসহায় মানুষের কল্যাণে পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছেন। বাড়তি সহায়তার জন্য নিজেদের মূল্যবান স্মারক নিলামে তুলছেন।
ইতিমধ্যে ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ মাতানো বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের প্রিয় ব্যাট নিলামে ২০ লাখ টাকায় বিক্রি করা হয়েছে। দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করা ব্যাটটি নিলামে তুলেছেন দেশসেরা ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।
সেই ধারাবাহিকতায় ২০০৫ সালে কার্ডিফে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঐতিহাসিক ম্যাচ জেতানো সেঞ্চুরি করা ব্যাটটি নিলামে তুলতে চেয়েছিলেন সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল। গত ১১ মে অকশন ফর অ্যাকশনের ফেসবুক পেজে ব্যাটটির নিলাম হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে নিজের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন দেশের প্রথম আন্তর্জাতিক তারকা।
আপাতত নিজের অমূল্য স্মারকটি নিলামে না তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। এ বিষয়ে আশরাফুল বলেন, বাংলাদেশে নিলামের প্রক্রিয়াটা আমার কাছে পরিষ্কার নয়। তাছাড়া মুশফিকের ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে নিলামের নামে উল্টাপাল্টা ঘটনা ঘটছে। এমনটা হলে আমার এত মূল্যবান স্মারক নিলামে তোলার কোনো মানে নেই।
স্মারকটি নিলামে তোলার মূল উদ্দেশ্যই হচ্ছে, মানুষকে সহায়তা করতে যত বেশি দাম পাওয়া যায়। কিন্তু এখানে যেভাবে নিলাম হচ্ছে, তাতে প্রিয় ব্যাটটা দিতে চাচ্ছি না। আর বর্তমান পরিস্থিতিতে মানুষের হাতে অত টাকাও নেই, যোগ করেন সাবেক এই অধিনায়ক।
জানা গেছে, নিলামে ব্যাটটির ভিত্তিমূল্য ১৫ লাখ টাকা দিতে চেয়েছিলেন আশরাফুল। কিন্তু এত টাকা ভিত্তিমূল্য রাখতে কেউ রাজি নন।
বিষয়টি নিয়ে তারকা এই ক্রিকেটার বলেন, ভিত্তিমূল্য কম রেখে লাভ কী? যে টাকা বলা হচ্ছে তাতো মানুষের কল্যাণে নিজেই ব্যয় করছি। এখন সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করায় অনেকেই আমাকে খারাপ ভাবতে পারে। তাছাড়া নিলামের সংস্কৃতি এই দেশে সেভাবে গড়ে ওঠেনি। ভবিষ্যতে সংস্কৃতি চালু হলে তখন দেব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category