বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৮




তিন মাস পর জামিন পেলেন শহিদুল আলম

নিজস্ব প্রতিবেদক: নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন চলাকালে উসকানিমূলক বক্তব্য প্রচারের অভিযোগে তথ্য-প্রযুক্তি আইনের মামলায় জামিন মিলেছে আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের।

বিচারপতি শেখ আবদুল আউয়াল ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর হাই কোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেয়।

শহিদুলের জামিন প্রশ্নে এক মাস আগে অন্য একটি বেঞ্চের দেওয়া রুলও যথাযথ ঘোষণা করে আদালত।

তথ্য-প্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেপ্তারের পর তিন মাস ধরে কারাগারে রয়েছেন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম।

জামিনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শহিদুল আলমের আইনজীবী জ্যোর্তিময় বড়ুয়া বলেন, ‘তার জামিন প্রশ্নে রুল মঞ্জুর করে আদালত তাকে স্থায়ী জামিন দিয়েছেন। এখন তার মুক্তিতে আর কোনো বাধা নেই।’

নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনের সময় ৫ আগস্ট শহিদুল আলমকে বাসা থেকে নেওয়ার পর ‘উসকানিমূলক মিথ্যা’ প্রচারের অভিযোগে তথ্য-প্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে ৬ আগস্ট তাকে রিমান্ডে নেয়া হয়।

এ মামলায় ৬ আগস্ট সিএমএম আদালতে তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর হয়। গত ১১ সেপ্টেম্বর ঢাকা মহানগর দায়রা জজ ইমরুল কায়েস শহিদুল আলমের জামিন আবেদন নাকচ করে দেন।

এরপর তিনি হাইকোর্টে জামিন আবেদন করা হলে গত ৭ অক্টোবর আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে কেন জামিন দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category