বুধবার, নভেম্বর ২৭, ২০১৯




চুরি ডাকাতিসহ যে কোন অপরাধের ঘটনা চোখে পড়লেই ‘৯৯৯’ কল করুন……এএসপি আহসান হাবিব

জহিরুল হাসান মিন্টুঃ
পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ, এই ¯স্লোগানে মতলব উত্তর উপজেলার কালীপুর বাজারে কমিউনিটি পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৭ নভেম্বর বুধবার ষাটনল ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং কমিটি মাদক, ইভটিজিং, নারী-শিশু নির্যাতন, সন্ত্রাস-জঙ্গি, চুরি-ডাকাতি ও সামাজিক অপরাধ দমনে সচেতনতামূলক ওই সভার আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (মতলব সার্কেল) মো. আহসান হাবিব। সভায় সভাপতিত্ব করেন- উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি মো. গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী।

ষাটনল ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান একেএম শরীফ উল্লাহ সরকার ও মতলব ডিগ্রি কলেজের জিএস রহমত উল্লাহ চৌধুরীর যৌথ সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, মতলব উত্তর থানার ওসি মো. নাসির উদ্দিন মৃধা, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মুরশেদুল আলম ভূঁইয়া, সেকেন্ড অফিসার এসআই মো. হাবিব, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সরকার মো. আবুল কালাম আজাদ, মল্লিকেরচর পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি বশিরুল হক বাচ্চু, মতলব উত্তর উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন বাদশা, ষাটনল ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহানারা আক্তার, ষাটনল ইউনিয়ন আ’লীগের সহ-সভাপতি ইলিয়াস মিয়াজী প্রমুখ।
সভা শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলোয়াত মোস্তাফিজুর রহমান।

সভায় স্থানীয় লোকজন উন্মুক্ত আলোচনায় বলেন, কালীপুর থেকে গজারিয়া হয়ে ঢাকা যাওয়ার জন্য এটা সহজ রুট। এই রুটে অনেক লোক যাতায়াত করে থাকে। মাঝে এই নদী পথে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। তাই নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশি টহল বাড়াতে হবে। এছাড়াও নদী পথে মাদক কারবারিদের আনাগোনা বেশি। মাদক নিয়ন্ত্রণে এই এলাকায় পুলিশি কার্যক্রম জোরদার করার জন্য অনুরোধ জানান বক্তারা।

আরো বক্তব্য রাখেন, কালীপুর হাই স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ এনামুল হক, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, বেলতলী নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আব্দুল মতিন, সমাজসেবক জসিম উদ্দিন, সমাজসেবক ডা. সফিউল্লাহ, পোস্ট মাস্টার নাছির হোসেন, ৯নং ওয়ার্ড মেম্বার হারুন অর রশিদ, ৬নং ওয়ার্ড মেম্বার খোরশেদ আলম, ১নং ওয়ার্ড মেম্বার বোরহান উদ্দিন, ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার শাহজাহান সরকার, সমাজসেবক রফিকুল ইসলাম ভুলু, ব্যবসায়ী জহির উদ্দিন, আলী আক্কাস মোল্লা প্রমুখ। সভায় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও ব্যবসায়ীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এএসপি আহসান হাবিব বলেন, অপরাধের বিষয়ে কোন ছাড় নেই। আর মাদক সন্ত্রাস তো চলতেই পারে না। যেকোনো মূল্যে মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিং ও অসামাজিক অপরাধ প্রতিহত করা হবে। এ ব্যাপারে জিরো টলারেন্স নীতিতে সবসময় তৎপর রয়েছে পুলিশ। তিনি বলেন, যেকোনো অপরাধের বিষয়ে কারো কাছে কোন তথ্য থাকলে সাথে সাথে আমাদের জানাবেন। তথ্যদাতার পরিচয় গোপন রাখা হবে। পুলিশ সর্বদা জনগণের সেবক হয়ে কাজ করছে। কারো আশেপাশে চুরি ডাকাতির ঘটনা চোখে পড়লে মতলব উত্তর থানা পুলিশকে অথবা ৯৯৯ এ কল করবেন। আর মনে রাখবেন পুলিশের পাশাপাশি সবাইকেই অপরাধ নির্মূলে সচেতন হতে হবে। তিনি সকলের সহযোগী কামনা করেন। সভাশেষে সম্প্রতি ডাকাতি হওয়া মতলব গজারিয়া রুটের মল্লিকচর স্থানটি পরিদর্শন করেন এসএসপি আহসান হাবিব ও মতলব উত্তর থানার ওসি মো. নাসির উদ্দিন মৃধা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category