সোমবার, এপ্রিল ৬, ২০২০




চাঁদপুরের সন্তানপুলিশ কনস্টেবল আসাদুজ্জামানবেতনের টাকায়  মানবতার এক দৃষ্টান্ত স্থাপন

গোলাম মোস্তফাঃ “পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ”  কথাটি বলেছিলেন চাঁদপুর বাসীর গব, বাংলাদেশ পুলিশের প্রধান আইজিপি ডক্টর মোঃ জাবেদ পাটোয়ারী। আর এ কথাটির  বাস্তব রূপে প্রমাণ দিলেন পুলিশ প্রধান আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারীরই  জন্ম স্হান চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলায় মকিমাবাদ গ্রামের  সন্তান বাংলাদেশ পুলিশে কনস্টেবল পদে চট্টগ্রামে  চাকুরীরত মোঃ আসাদুজ্জামান ও তাঁর বন্ধুরা।  কনস্টেবল পদে চাকুরী করে তাদের বেতনের টাকায় মানবতার সেবায় এক দৃষ্টান্ত স্হাপন করলেন।তাদের এ মানবতার সেবাকে অনুপ্রেরণা যোগিয়ে তাঁর অনেক বন্ধু তাদের ফেসবুক পেইজে স্টাটাস দিয়ে তাদের সাফল্য কামনা করেন এবং তাদের এ কাজটি সমাজে দৃষ্টান্ত স্হাপন করবে বলে জানান।

ফেসবুক পেইজের স্টাটাস থেকে  জানাযায়,  আতংকের ভাইরাস “” করোনা”” সংক্রামক থেকে রক্ষা পেতে সারা দেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে  জনগণ কে ঘরে থাকার নিদেশ দেয়। এ অবস্থায় গরীব ও দুঃস্হদের শুধু সরকার নয়, বিভিন্ন সংস্থা ও রাজনৈতিক দলও সহযোগিতার হাতবাড়িয়েছে।

অথচ রাস্তায় পড়ে থাকা অন্ধ, পঙ্গু বা রোগাক্রান্ত এ জনগোষ্ঠীকে দেখার যেনো কেউ নাই,  তাইতো আমাদের দেশের সকল সময়ে জনগনের অতন্দ্র প্রহরী হিসেবে যারা আইনশৃঙ্খলার দায়িত্ব পালন করেন, সেই পুলিশ বাহিনীর জন্ম থেকে কত না বদনাম কাঁধে নিয়ে কাজ করতে হয়। এক কথায়  পুলিশের সুনামের চেয়ে দুর্নাম ই বেশি, সেখানে কিছু মানুষ দেখিয়ে দেয় যে, ভালো-খারাপ মিলিয়েই এই পৃথিবী। সুতরাং, ভালো-খারাপ সব জায়গাতেই আছে। পুলিশ বাহিনীর কতিপয় ২/১ জন ব্যক্তির অপকর্মের কারণে  যেমন বদনাম, আবার  ভালো কাজের সুনাম ও  রয়েছে হাজারো উদাহরণ।

এসবই ইতিবাচক এবং নেতিবাচক মন-মানসিকতার উপর নির্ভর করে তারপর ও বলতে হয়,  আসলে পুলিশ দ্বারা কি না সম্ভব?

ওরা চাইলে দেশের  জনগনের একজোড়া জুতাও চুরি হওয়া  সম্ভব না, আবার ওরা চাইলে সম্পূর্ণ দেশটাই ক্ষণিকের মাঝে তছনছ হয়ে যেতে পারে।  আবার  দেশের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা প্রতিটা পুলিশ মানবিকতায় উদার হয়ে কাজ করে।

মানবতার এ সেবার বিষয়ে কনস্টেবল আসাদুজ্জামানের বেশকজন বন্ধু, এভাবেই তাদের ফেসবুক পেইজে স্টাটাস দেন “”  আমরা অনেকবারই পুলিশের সাহসিকতার, মানবিকতার এবং উদারতার প্রমাণ পেয়েছি। ঠিক তেমনই এক মানবিকতার উদাহরণ দিলো, বন্ধু পুলিশ কনস্টেবল আসাদুজ্জামান, ইয়াসির রাকিব এবং শাহাদাত ।

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণের জন্য পুরো দেশ যখন নিস্তব্দ হয়ে গেছে এবং খুব জরুরী প্রয়োজন নাহলে কেউ বাসা থেকে বের হয় না। এবং চলছে প্রশাসনের প্রতিনিয়ত টহল যেন কেউ বাসা থেকে বের হয়ে অযথা ঘোরাঘুরি না করে।  যে মানুষগুলোর ঘর নেই, খাবার নেই, চোখ নেই, পা নেই, ফুটপাতে থাকতে হয়,  তাদের খবর আর কে রাখে!  কিন্তু কিছু মানুষ থাকে যারা সবসময় মানবিকতার প্রমাণ দেয়। দেশের এই পরিস্থিতিতে নিজের অবস্থান থেকে  ফুটপাতের এবং রাস্তার অসহায় মানুষের দিকে নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলো তারা। দেশের প্রতিটা প্রান্তে যদি এরকম কিছু মানবিক মানুষ থাকে, তাহলে আমি ১০০% নিশ্চিত হয়ে বলতে পারি, আমাদের দেশে কোনো পরিস্থিতিতেই কাউকে অনাহারে থাকতে হবে না।

আসুন সবাই নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী দেশের এই করুণ পরিস্থিতিতে রাস্তায় পড়ে থাকা  অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াই।  দেশের পুলিশ প্রধান, পুলিশ মহাপরিদর্শক মোঃ জাবেদ পাটোয়ারী সেই উক্তিটি “”” পুলিশিই জনতা, জনতাই পুলিশ “” কথাটির যথাথ  প্রমাণ দেওয়ার জন্য,   তাঁরই এলাকার সন্তান পুলিশ কনস্টেবল আসাদুজ্জামান সহ বন্ধুদের এ উদ্যোগ হয়ে থাকুক চির অম্লান।
বন্ধুরা,  ক্ষুদ্র পরিসরে থাকা মানুষ গুলোই যুগে যুগে  মানবতার ও মানবিকতার কাজ করে  স্ব স্ব পেশাকে করেছে  উজ্জ্বল আর স্হাপন করেছে  দৃষ্টান্ত।

পরিশেষে তোমাদের জন্য শুভ কামনা, ধন্যবাদ বন্ধুরা।  আসাদুজ্জামান ও তাঁর বন্ধুদের এ মহতী কাজের প্রশংসা করে এভাবেই বন্ধুরা ফেসবুক পেইজে স্টাটাস দিয়েছেন।
তাদের শুভ কামনা করে দেওয়া একটি  স্টাটাস ও পঙ্গু অসহায় মানুষ গুলোর মাঝে খাদ্য বিতরনের ছবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category