বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৯




চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনায় দু’মাস মাছ ধরা নিষেধ

 

স্টাফ রিপোর্টার: জাটকা রক্ষা ও ইলিশ উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনা নদীতে শুক্রবার (০১ মার্চ) থেকে মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) পর্যন্ত দুই মাস ইলিশসহ সব ধরনের মাছ আহরণ নিষিদ্ধ করেছে সরকার।

জেলার মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল থেকে হাইমচর উপজেলার চরভৈরবী পর্যন্ত ৯০ কিলোমিটার এলাকা অভয়াশ্রম ঘোষণা করা হয়েছে। এ সময়ে ইলিশসহ যেকোনো মাছ আহরণ, ক্রয়-বিক্রয়, মজুদ ও সরবরাহ নিষিদ্ধ থাকবে।

চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, জাটকা সংরক্ষণ কর্মসূচি বাস্তবায়নের জন্য ইতোমধ্যে জেলা টাস্কফোর্স কমিটি গঠন করা হয়েছে। জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, নৌ-পুলিশ, কোস্টগার্ড, জেলা মৎস্য বিভাগ ও স্থানীয় জনপ্রনিধিরা এ কমিটিতে রয়েছে।

দুই মাসের এ কর্মসূচি বাস্তবায়নের জন্য বুধবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে টাস্কফোর্স কমিটির বিশেষ সভা হয়েছে। সভায় জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমান খান যেসব জেলে আইন অমান্য করে জাটকা নিধন করে তাদের তালিকা তৈরি করে দেওয়ার জন্য মৎস্য বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছেন।

চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আসাদুল বাকি বাংলানিউজকে বলেন, জেলার ৫১ হাজার তালিকাভুক্ত জেলে রয়েছে। এসব জেলেদের জাটকাসহ সব ধরনের মাছ আহরণ থেকে বিরত থাকার জন্য ইতোমধ্যে সচেতনতামূলক সভা করা হয়েছে। নদী উপকূলীয় এলাকায় মাইকিং করা। জেলে পাড়ায় লিফলেট বিতরণ ও আড়ৎগুলোতে ব্যানার টাঙানো হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, জাতীয় সম্পদ ইলিশ রক্ষায় জাটকা সংরক্ষণ করা একান্ত প্রয়োজন। আর এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে হলে প্রশাসনের পাশাপশি, জনপ্রতিনিধি ও সব শ্রেণি পেশার মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। আইন অমান্য করে কোনো জেলে জাটকা নিধন করলে তাদের বিরুদ্ধে মৎস্য আইনে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category