সোমবার, মে ৪, ২০২০




করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন

স্টাফ রিপোর্টারঃ প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বঙ্গবন্ধু চেয়ার’ অধ্যাপক ড. মুনতাসীর মামুন করোনার উপসর্গ নিয়ে রাজধানীর কোভিড ডেডিকেটেড মুগদা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। রবিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে তাকে ভর্তি করানো হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের এক শিক্ষক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন

এদিকে অধ্যাপক মুনতাসীর মামুনের মা করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি আছেন। ঐ শিক্ষক জানান, এক সপ্তাহ আগে টেস্টে করোনা পজিটিভ আসলে ড. মুনতাসীর মামুনের মাকে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মুগদা জেনারেল হাসপাতালের কোভিড-১৯ বিষয়ক টিমের ফোকাল পারসন ডা. মাহবুবুর রহমান জানান, এরই মধ্যে ড. মুনতাসীরের করোনা পরীক্ষা করিয়েছেন কিন্তু রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তবে তার জ্বর ও শ্বাসকষ্ট আছে। এজন্য তিনি ভর্তি হয়েছেন। সোমবার আবারও তার পরীক্ষা করা হবে।

অধ্যাপক মুনতাসীর মামুনের জন্ম ১৯৫১ সালের ২৪ মে ঢাকায়। তিনি ১৯৬৬ সালে এসএসসি এবং ১৯৬৮ সালে এইচএসসি পাশ করেন। ১৯৭২ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইতিহাস বিভাগ থেকে বিএ (অনার্স) এবং ১৯৭৪ সালে এমএ ডিগ্রী লাভ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৮৩ সালে পিএইচ ডি ডিগ্রী অর্জন করেন। এরপর তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইতিহাস বিভাগে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন ১৯৭৪ সালের ৩১ অক্টোবর।

১৯৮০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি সহকারী অধ্যাপক, ১৯৮৬ সালের ২৫ ডিসেম্বর সহযোগী অধ্যাপক এবং ১৯৯১ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি অধ্যাপক পদে পদোন্নতি লাভ করেন অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন। তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর সাউথ এন্ড সাউথ-ইস্ট এশিয়ান স্টাডিজ-এ ‘ইনসাইড ব্যুরোক্রেসি : বাংলাদেশ’ শীর্ষক গবেষণা সম্পন্ন করেন ১৯৮৪ সালে ।

অধ্যাপক মুনতাসীর একজন লেখক, শিক্ষাবিদ ও ইতিহাসবিদ হিসেবে সর্বজন পরিচিত। ঢাকা শহর এবং ঢাকার ইতিহাস নিয়ে তিনি গবেষণা করেছেন। তার প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- লাইফ এন্ড সোসাইটি ইন ইস্ট বেঙ্গল : ১৮৫৭-১৯০৫, (১৯৮৬); ঊনিশ শতকের পূর্ব বাংলা (১৯৮৬), কালীপ্রসন্ন ঘোষ (১৯৮৯), পুরান ঢাকা (১৯৮৯) ইত্যাদি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category