মঙ্গলবার, জুন ৯, ২০২০




করোনাকালে গর্ভবতী মায়েদের উপহার পাঠালেন তামিম 

মো. নাছির উদ্দীন : একজন মা যখন গর্ভবতী হন, তখন পুরো পরিবারে একটা আনন্দের বন্যা বয়ে যায়। এই সময় সেই মায়ের প্রয়োজন হয় চিকিৎসার এবং পুষ্টিকর খাবারের। কিন্তু যখন কোনো পরিবার পরিস্থিতির শিকারে পড়ে সেই মাকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা এবং খাবার দিতে পারে না, তখন ওই পরিবারে নেমে আসে অন্ধকার। সেই পরিবার না পারে কাউকে কিছু বলতে, না পারে সহ্য করতে। এমন অনেক পরিবার আছে যারা এই করোনা পরিস্থিতির মাঝে কষ্টকর মুহূর্তের মধ্যে বসবাস করছেন। তাদের কষ্ট ভাগ করে নিতে এবার রংপুরে ১০০ গর্ভবতী মায়েদের জন্য উপহার পাঠালেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল।
রংপুরে বিনামূল্যে খাবার পৌঁছে দেয়ার মহতী এক উদ্যোগ নেন সাবেক নারী ক্রিকেটার আরিফা জাহান বীথি। প্রতিদিন বীথি ত্রাণ সাহায্য নিয়ে অসহায় গর্ভবতী নারীদের বাড়িতে যাচ্ছেন। তার এই উদ্যোগে শামিল হয়ে বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল গর্ভবতী মায়েদের জন্য উপহার পাঠালেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করে আরিফা জাহান বীথি বলেন, তামিম ভাই আমাকে কল দিয়েছিলেন। উনি আমার উদ্যোগকে সমর্থন জানিয়ে আমাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। ১০০ গর্ভবতী মায়েদের জন্য তিনি উপহার পাঠিয়েছেন। যাতে করোনার এই সময়ে তাদের খাবারের সংকটে পড়তে না হয়। ইনশাআল্লাহ তামিম ভাইয়ের দেয়া উপহার পৌঁছে দেবো গর্ভবতী মায়ের কাছে। তিনি আরও বলেন, সত্যি এটা কখনো কল্পনা করতে পারিনি আমার মতো ক্ষুদে একজন মানুষকে বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল ফোন দেবেন।। দেশের জন্য মাঠে যুদ্ধ করা মানুষটি প্রতিনিয়ত করোনা পরিস্থিতিতে থাকা মানুষের জন্য যুদ্ধ করছেন সব সময়, পৌঁছে দিচ্ছেন সেই মানুষগুলোর কাছে প্রয়োজনীয় খাবার সামগ্রী। ঠিক তেমনিভাবে এবার তিনি দাঁড়িয়েছেন আমার উদ্যোগ নেয়া রংপুরের গর্ভবতী মায়েদের পাশে। তামিম ভাইয়ের প্রতি অনেক অনেক কৃতজ্ঞতা ও ভালোবাসা রইল। এর আগে আরিফা জাহান বীথির উদ্যোগকে সচল করার জন্য গর্ভবতী মায়েদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার রুবেল হোসেন।
সাবেক নারী ক্রিকেটার আরিফা জাহান বীথি তার নিজের জমানো টাকা আর বড় বোন আয়েশা সিদ্দিকার সাহায্যে গর্ভবতী নারীদের সাহায্য করার চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেন। কিন্তু অর্থসংকটে বীথির সেই মহতী উদ্যোগ আকস্মিকভাবে থমকে গিয়েছিল। অনেক জায়গা থেকে প্রচুর কল আসতে থাকলেও নিজের জমানো আর বোনের দেয়া টাকা শেষ হয়ে যাওয়ায় একসময় অসহায় হয়ে ঘরেই বসে ছিলেন বীথি। মাঝে মাঝে অনেকের কাছ থেকে সহযোগিতা পেয়ে অবশ্য তিনি আবারো নামেন মানবতার ফেরিওয়ালা হয়ে।
রংপুরে একটিমাত্র ফোনকলেই বিনামূল্যে পৌঁছে যাবে গর্ভবতী মায়েদের ঘরে খাবার। আর গোপন থাকবে সেই গর্ভবতী মায়ের পরিচয়। +৮৮০১৩১৯৯৯৮৫৯৭ নম্বরে একজন গর্ভবতী মা প্রয়োজনে কল দিয়ে নিজের অবস্থানের কথা জানালেই তার হাতে খাবার পৌঁছে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category