বুধবার, অক্টোবর ১৬, ২০১৯




কচুয়ায় ধর্ষন মামলার আসামী সাদ্দাম হোসেন গ্রেফতার

মফিজুল ইসলাম বাবুলঃ চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার গোহট উত্তর ইউনিয়ন তালতলী গ্রামের সর্দ্দার বাড়ির জনৈক আব্দুর রশিদের ছেলে ধর্ষন মামলার আসামী সাদ্দাম হোসেন (৩২) কে কুমিল্লার পুলিশ ইনভেস্টিগেশন ব্যুরো (PBI) অফিসার আব্দুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স গ্রেফতার করেছে।

মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) রাত প্রায় ৯টার দিকে কচুয়া উপজেলার হাশিমপুর মিয়ার বাজারের ডাঃ শাহদাতের ক্লিনিক থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। কুমিল্লা বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল নং-২ আদালতের মামলা সূত্রে প্রকাশ, কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার চেংগাহাটা গ্রামের ইব্রাহীম খলিলের মেয়ে ৪ সন্তানের জননী শাহিনুর আক্তারকে ধর্ষনের অভিযোগে গ্রেফতার করে। শাহিনুর কচুয়া উপজেলার গোহট উত্তর ইউনিয়নের তালতলী গ্রামের প্রবাসী তোফায়েল হোসেনের স্ত্রী। শাহিনুরের শ্বশুর বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহের মাষ্টারের বাড়ি সংলগ্নে তার নিজস্ব একটি মার্কেটে দোকান ঘর ভাড়া নিয়ে সাদ্দাম ব্যবসা করে আসছে। এ সুবাদে সাদ্দাম আবু তাহের মাষ্টারের বাড়িতে আসা যাওয়া করতো এবং শাহিনুরের সাথে পরিচয় হয়। সাদ্দামের এ আসা যাওয়ায় শাহিনুরের অজান্তে গোসলখানার এবং অন্যান্য আপত্তিকর ভিডিও তার মোবাইলে ধারন করে। এই ধারনকৃত অশ্লীল ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার ভয়-ভীতি দেখিয়ে সাদ্দাম শাহিনুরের কাছ থেকে প্রায় ৩ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করে এবং প্রতিনিয়ত তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। এতেও সাদ্দাম ক্ষ্যান্ত না হয়ে আরো ৫ লক্ষ টাকার দাবীসহ বিভিন্ন হুকমি-ধমকি দেয়ায় শাহিনুর তার পিত্রালয়ে আশ্রয় নেয়। সাদ্দাম এখানেও দ্বীতিয় ঘটনা ২০-০৯-২০১৯ ইং তারিখের বিকেল ৪টার দিকে শাহিনুরের পিত্রালয়ে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীদের নিয়ে ৫ লক্ষ টাকা দেয়ার দাবীতে বাক-বিতন্ডা সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে শাহিনুরের ডাক-চিৎকারের আশ-পাশের লোকজন ছুটে আসতে দেখে সাদ্দামসহ তার সহযোগিরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে চলে যায়। এ নিয়ে শাহিনুর বাদী হয়ে কুমিল্লার আদালতে মামলা দায়ের করে। মামলা নং-৪৯০/১৯। কুমিল্লার (PBI) অফিসার আব্দুর রাজ্জাক বিষয়টি নিশ্চিত করেন এবং তাদের অতুলোনীয় প্রশংসনীয় ভুমিকায় ঝটিকা অভিযান চালিয়ে সাদ্দামকে গ্রেফতার করে বুধবার (১৬অক্টোবর) কুমিল্লার আদালতে সপর্দ করে।

সাদ্দামের গ্রাম এলাকার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জানান, সে অারো একাধীক নারীর অশ্লীল ভিডিও মোবাইলে ধারন করে ব্লাকমেইল করে আসছে । সাদ্দাম এলাকার কতিপয় প্রভাবশালীদের চত্রছায়ায় এসব করে যাচ্ছে। এলাকাবাসী তার এসব অপকর্মের জন্য দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category