মঙ্গলবার, মার্চ ১৯, ২০১৯




আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে ইংল্যান্ড পাকিস্তানের পাশে আফগানিস্তান

ক্রীড়া প্রতিবেদকঃ নিজেদের মাত্র দ্বিতীয় টেস্টেই জয়ের স্ব’দ নিলো  আফগানিস্তান। দেরাদুনে সফরকারী আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে ৭ উইকেটে জয় দেখলো আফগানরা। নিজেদের টেস্ট ইতিহাসের মাত্র দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ের নজির রয়েছে কেবল ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানের। আর টেস্ট ইতিহাসে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয়ের রেকর্ড অস্ট্রেলিয়ার। টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর দল ভারত তাদের প্রথম জয় পেয়েছিল ২৫ ম্যাচ পর। বাংলাদেশ প্রথম জয় পায় ৩৫ ম্যাচ পর। টেস্টে নিজেদের প্রথম জয়ের পর আফগানিস্তানের অধিনায়ক আসগর আফগান বলেন, ‘এটি আমাদের  দলের এবং দেশের জনগণের জন্য ঐতিহাসিক দিন।’ ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে ৮২ রানে পাঁচ উইকেট নেন রশিদ খান। আফগানিস্তানের হয়ে টেস্টে প্রথম পাঁচ উইকেট শিকারি রশিদ খানই।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বকনিষ্ঠ বোলার হিসেবে তিন ফরম্যাটেই পাঁচ উইকেট শিকারের কৃতিত্ব দেখালেন ২০ বছর ১৮৭ দিন বয়সী এই আফগান লেগ স্পিনার। দেরাদুন টেস্টের চতুর্থদিনে জয়ের জন্য আফগানিস্তানের দরকার ছিল ১৪৭ রান। রহমত শাহ্‌ ও ইহসানউল্লার দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে এ লক্ষ্য পেরুতে বেগ পেতে হয়নি। এই দুজন মিলে গড়েন ১৩৯ রানের জুটি। দুজনেই ফিফটি তুলে নেন।
এর আগে দেরাদুন টেস্টে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নামে আয়ারল্যান্ডে। ইয়ামিন আহমেদজাই ও মোহাম্মদ নবির দুর্দান্ত বোলিংয়ে ১৭২ রানে গুটিয়ে যায় আইরিশদের ইনিংস। ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ৫৪ রান করেন টিম মুর্থা। তিনটি করে উইকেট শিকার করেন ইয়ামিন ও নবি। জবাবে ৩১৪ রানে থামে আফগানিস্তানের প্রথম ইনিংস। মাত্র ২ রানের জন্য ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি মিস করেন রহমত শাহ । দ্বিতীয় ইনিংসে নেমে ২৮৮ রান সংগ্রহ করে আয়ারল্যান্ড। তাতে আফগানিস্তানে লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৪৭ রানের।  আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের পর আফগানিস্তানের অধিনায়ক আসগর বলেন, ‘এখন বিশ্বকাপ প্রস্তুতির জন্য আমরা দক্ষিণ আফ্রিকায় যাবো। আমরা আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো ভালো ক্রিকেট খেলার জন্য।’ গত বছর বেঙ্গালুরুতে ভারতের বিপক্ষে আফগানিস্তানের টেস্ট অভিষেক হয়। সেই ম্যাচে দুই দিনেই হার দেখেছিল আফগানরা। আর ডাবলিনে অভিষেক টেস্টে পকিস্তানের কাছে হার দেখে আইরিশরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category