মঙ্গলবার, মার্চ ৩০, ২০২১




আরেকটি হতাশার  পরাজয়

মো. নাছির উদ্দীন : সৌম্য সরকার আউট হতেই বাংলাদেশের আশাটা শেষ হয়ে গেল। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান অনেকদিন পর হাত খুললেন। ২২ গজে দেখালেন আগ্রাসন। নেপিয়ারে আজ নিউজিল্যান্ড বোলারদের শাসন করে ২৫ বলে তুলে নিলেন ফিফটি। তার কিছুপরই আউট। বাংলাদেশও ছিটকে গেল ম্যাচ থেকে। বৃষ্টি আইনে পড়ে ১৬ ওভারে ১৭০ রানের লক্ষ্যটা হয়ে গেল বেশ বড়ই। শেষ পর্যন্ত কিউইদের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টুয়েন্টিতে সফরকারীরা করতে পেরেছে ৭ উইকেটে ১৪২ রান। হ্যামিল্টনে প্রথম টি-টুয়েন্টিতে ৬৬ রানে হারা বাংলাদেশ নেপিয়ারে বৃষ্টি আইনে হেরেছে ২৮ রানে, সঙ্গে সিরিজও। সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টুয়েন্টি বুধবার, অকল্যান্ডে।
বিশাল লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই লিটন দাসের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। আরেক ওপেনার নাঈম শেখ শুরুতে ছিলেন মারমুখী। তিনে নেমে সৌম্য সরকার দ্রুত ঘোরাতে থাকেন রানের চাকা। দুইপ্রান্ত থেকেই রান আসা যখন প্রয়োজন, তখন ধীরগতির হয়ে পড়েন নাঈম। তারপরও ১০ ওভারে ১ উইকেটে বাংলাদেশ তোলে ৯৪ রান। শেষ ৩৬ বলে প্রয়োজন ছিল ৭৭ রান। বাংলাদেশ আরও ৫ উইকেট হারিয়ে তুলতে পারে মাত্র ৪০ রান। নাঈম ৩৫ বলে ৩৮, সৌম্য ২৭ বলে ৫১ রান করে আউট হন। ১২ বলে ২১ রান আসে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর ব্যাটে। ৬ বলে ১২ রান করে অপরাজিত থেকে যান মেহেদী।
এর আগে টসে জিতে  কিউইদের ব্যাটিংএ  আমন্ত্রণ জানায় অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ. নিউজিল্যান্ড ইনিংসের যখন ১৩ বল বাকি, তখন শুরু হয়েছিল বৃষ্টি। খেলা বন্ধের আগে কিউইরা ১৭.৫ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে তোলে ১৭৩ রান। ইনিংসের মাঝপথে ব্যাট হাতে ঝড় তোলেন গ্লেন ফিলিপস ও ড্যারেল মিশেল। তাদের ষষ্ঠ উইকেট জুটির তাণ্ডব নিউজিল্যান্ডকে দেখায় বড় সংগ্রহের পথ।ফিলিপস ৩১ বলে ৫৮ ও মিশেল ১৬ বলে ৩৪ রানে অপরাজিত থাকেন। অবিচ্ছিন্ন জুটিতে তারা ৬২ রান যোগ করেন মাত্র ২৫ বলে। মেহেদী হাসান নেন দুটি উইকেট। একটি করে উইকেট নিয়েছেন তাসকিন আহমেদ, সাইফউদ্দিন ও শরিফুল ইসলাম। উইকেট না পেলেও দারুণ বোলিং করেছেন নাসুম আহমেদ। বাঁহাতি স্পিনার ৪ ওভারে দেন মাত্র ২৫ রান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category